সোনাগাজীতে প্রার্থীতা ফিরে ফেলেন কাউন্সিলর শিপুল - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

সোনাগাজীতে প্রার্থীতা ফিরে ফেলেন কাউন্সিলর শিপুল



আমজাদ হোসাইন (নাহিদ), সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

আসন্ন সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর সৈয়দ গিয়াস উদ্দিন শিপুল সকল জল্পনা কল্পনার অবসান কাটিয়ে হাইকোর্ট থেকে আপিলের মাধ্যমে আবারও প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন।

 

সূত্রে জানায় আগামী ২০ মার্চ সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ২৫শে ফেব্রুয়ারী মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাইকালে জেলা রিটার্নিং অফিসার মোজাম্মেল হোসেন সৈয়দ গিয়াস উদ্দিন শিপুলের মনোনয়ন পত্র বাতিল ঘোষণা করেন। পরে তিনি জেলা প্রশাসক বরাবরে আপিল করেও প্রার্থীতা বাতিল বলে বিবেচিত হয়। গত ২৯শে ফেব্রুয়ারী াবাতিল হওয়া কাগজ পত্রের ও প্রার্থীর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে শিপুল হাইকোর্টে আপিল করেন।

 

দীর্ঘ শুনানীর পর বিচারপতি কামরুল ইসলাম ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের দ্বৈত বেঞ্চ  শুনানী শেষে কাউন্সিলর শিপুলের বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ ৩মাসের স্থগিত করে পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে বৈধতার ঘোষণা দিয়ে তাকে প্রতিক বরাদ্ধ দেওয়ার জন্য ৩রা মার্চ নির্বাচন কমিশনকে  নির্দেশনা দেওয়া হয়। প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন শিপুল জানান আমি পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের টানা ২ বারের নির্বাচত প্রতিনিধি। আমার জনপ্রিয়তায় ইর্ষানিত হয়ে একটি অসাধু চক্র আমাকে হয়রানী করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরণের মিথ্যা, বানোয়াট, তথ্য ও গুণজন রটিয়ে অভিযোগ উত্থাপনের মাধ্যমে আমাকে নির্বাচন থেকে দূরে স্বরাতে চেয়েছিল।

 

 

শিপুলের ছোট ভাই সোহরাব হোসেন কপিল জানান ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ মোস্তফা সহ একটি মহল আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে হয়রানী করার চেষ্টা করছে। এমনকি থানায় অভিযোগ দিয়েও মিথ্যা মামলা সাজিয়ে নির্বাচন না করতে আমাদের পরিবারের লোকদেরকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। বিষয়টি নির্বাচন কমিশন সহ উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ কে তদন্ত করে অপরাধীধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।



এ সম্পর্কিত আরো খবর

ফিচার এর অন্যান্য খবরসমূহ
ফেনী এর অন্যান্য খবরসমূহ