চরফ্যাশন ইউনিয়নে আ.গীগের প্রার্থী কে হবে তা নিয়ে নানা গুঞ্জন - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

চরফ্যাশন ইউনিয়নে আ.গীগের প্রার্থী কে হবে তা নিয়ে নানা গুঞ্জন



মোঃ শিহাব উদ্দিন, চরফ্যাশন, ভোলা প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

শশীভূষণ থানা সদর ১১ নং রসুলপুর ইউনিয়নের আসন্ন নির্বাচনে আ’লীগের মনোনয়নে কে চুরান্ত প্রার্থী হবে তা নিয়ে জনমনে নানা গুঞ্জন বিরাজ করছে।

 

এ ইউনিয়নের একাধিকবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান হাসান মিন্টু বিগত দিনে রাজনৈতিক পালাবদলের ছত্রছায়ায় নিজের আখের গোছাতে প্রথমে জাতীয় পার্টি, তারপর বি, এন, পি, তারপর আ’লীগ আবার, বি, এন, পি ক্ষমতায় আসলে বি, এন, পি পরে ২০০৮ সালে আ’লীগ ক্ষমতায় আসলে আ’লীগ করে আসছে। সব মিলিয়ে সে সবসময় সরকার দলে থাকে।

 

তার বাবা আঃ খালেক মাতাব্বর মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন বৃহত্তর চর মানিকা ইউনিয়নের শান্তী (রাজাকার) কমিটির সহ-সভাপতি ছিলেন বলেও অভিযোগ আছে এবং তার ভাই মোশারেফ মাতাব্বর যুবদল নেতা। নিজের আধিপত্ব বা নেতৃত্ব ধরে রাখার নিতি তার পুরনো দিনের।

 

সম্প্রতি গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ইউ, পি নির্বাচনে দলিয় মনোনয়নে প্রার্থী নির্বাচন করার সিন্ধান্ত নেয়ায় সে এখন এদিক সেদিক ছুটাছুটি করলেও অবশেষে আ’লীগের মনোনয়েনের বিষয়টি কোথায় গিয়ে দাড়ায় তাই এখন দেখার বিষয় বলে আলোচনা বিরাজমান রয়েছে।

 

এদিকে শশীভূষনের ঐতিহ্যবাহী পন্ডিত পরিবারের ও আ’লীগ পরিবারের তরুন যুবলীগ নেতা জহিরুল ইসলাম পন্ডিত এ ব্যাপারে পিছিয়ে নেই বলে আলোচনা রয়েছে। প্রকৃত আ’লীগ দলীয় পরিবার বিবেচনায় এনে মনোনয়ন চুরান্ত করলে জহিরুল ইসলাম পন্ডিতের বিকল্প নেই বলে সত্যতা স্বীকার করেছেন অভিজ্ঞ মহল।

 

মরহুম মোখলেছুর রহমান পন্ডিত ছিলেন বৃহত্তর চর মানিকা ইউনিয়নের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি এবং এই ইউ, পি আ’লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি তারই পুত্র জহির পন্ডিত আজকের শশীভূষণ থানা যুবলীগের আহ্বায়ক এছাড়াও তার পরিবার এই এলাকার আ’লীগের দুর্গ বলে খ্যাত।

 

সর্বশেষ মনোনয়ন প্রাপ্তীর শেষ হাসি এ তরুন যুবলীগ নেতা জহির পন্ডিত হাসবেন বলে মনে করেন এই এলাকার আ’লীগ প্রেমী জনগন।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

ভোলা এর অন্যান্য খবরসমূহ