ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)
গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের আহবায়ক ডা. ইমরান এইচ সরকারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেছেন গাজীপুরের আদালত।
সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গন থেকে ভাস্কর্য অপসারণ ঘটনায় অযৌক্তিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে শ্লোগান দিয়ে কটুক্তি করে সম্মানহানি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় এ গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী হয়। গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-২ এর বিচারক মো. শহীদুল ইসলাম বৃহস্পতিবার গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর আদেশ দেন।
বাদী পক্ষের আইনজীবী ওয়াসিম খলিল জানান, জাতীয় ঈদগাহ সংলগ্ন সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ হতে গ্রীক দেবী জাস্টিসিয়ার মূর্তি অপসারণ এবং এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে দেশকে অস্থিতিশীল করে তুলতে গণজাগরণ মঞ্চের স্বঘোষিত মুখপাত্র ‘ইমরান এইচ সরকার’ এর নেতৃত্বে কতিপয় দুষ্কৃতিকারী গত ২৬ মে সন্ধ্যায় শাহবাগ এর জাতীয় জাদুঘর গেট হতে মশাল মিছিল বের করে।

এ সময় বিনা উস্কানীতে অযৌক্তিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে বারংবার অশ্রাব্য মানহানিকর স্লোগান দিয়ে কটুক্তি করে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশালীন মন্তব্য করে জনসম্মুখে তার সম্মানহানি করে।

এ অভিযোগে গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের আহবায়ক ডা. ইমরান এইচ সরকারসহ তিন জনের বিরুদ্ধে গত ৩১ মে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-২ এ মামলা দায়ের করা হয়।
মামলায় গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী সনাতন উল্লাস ও নাসির উদ্দিন এবং অজ্ঞাত আরো ৩০/৩৫জনকে অভিযুক্ত করা হয়। গাজীপুর মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সুমন আহমেদ শান্ত বাবু বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।
ওইদিন আদালতে বাদীর জবানবন্দী গ্রহণ ও যথাযথ শুনানি শেষে বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে আসামীদের প্রতি সমন ইস্যু করেন। এসময় বিচারক বৃহস্পতিবার আসামিদেরকে সশরীরে আদালতে হাজির হয়ে অভিযোগ এর জবাব দেওয়ার আদেশ দেন।
আদেশে আরো উল্লেখ করা হয় আসামিরা নির্ধারিত ২৭ জুলাই আদালতে হাজির হতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হবে। কিন্তু নির্ধারিত ২৭ জুলাই আসামীরা আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় শুনানী শেষে আদালতের বিচারক তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর আদেশ দেন।

বাংলাদেশ এর অন্যান্য খবরসমূহ