নাঙ্গলকোটে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

নাঙ্গলকোটে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ



কেফায়েত উল্লাহ মিয়াজী,, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের পেরিয়া ইউনিয়নের শ্রীফলিয়া গ্রামে সুমি বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত গৃহবধূ শ্রীফলিয়া দক্ষিণ পাড়ার ফার্নিচার মেস্ত্রী মাঈন উদ্দীনের পুত্র সোহেল হোসেন সোহাগের স্ত্রী। শনিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। আজ রোববার সকালে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।


জানা যায়, নাঙ্গলকোটের মেরকট গ্রামের খোরশেদ অালমের মেয়ে সুমির সাথে একই উপজেলার শ্রীফলিয়া গ্রামের ফার্নিচার মেস্ত্রী মাঈন উদ্দীনের ছেলে সোহাগের ২০১৭ সনে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সোহাগের পক্ষ থেকে সুমির পরিবারকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে। এ নিয়ে কয়েকবার শালিস বসে সমাধান করে দেয়। শনিবার রাতেও এ নিয়ে সোহাগ মোবাইল ফোনে সুমির সাথে ঝগড়া করে। মোবাইল ফোনে ঝগড়ার এক পর্যায়ে সোহাগের মা মাজেদা বেগম সুমির সাথে ঝগড়া শুরু করে।  পরে তাকে রাতের কোন এক সময়ে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ করে নিহতের পরিবার।


নিহত সুমির বাবা একই উপজেলার অাদ্রা ইউনিয়নের মেরকট গ্রামের খোরশেদ অালম জানান, তার মেয়েকে যৌতুকের কারনে শ্বাসরোধে অথবা বিদ্যুতিক সর্ট দিয়ে হত্যা করা হয়েছে।


নিহতের খালা উপজেলার লুদুয়া গ্রামের ইউসুফের স্ত্রী শাহেনা বেগম বলেন, সোহাগ বিদেশ যাওয়ার সময় ১ লাখ টাকা নিয়েছে। এখন সে অাবার যৌতুকের জন্য চাপ দিচ্ছে। পরে আমরা সুমিকে তার বাবার বাড়ীতে রেখে দিলে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ শালিস করে নিয়ে আসে, আজ সে লাশ।


নিহতের শাশুড়ি মাজেদা বেগম জানান, রাত ১২টার দিকে সুমি অসুস্থতার কথা জানালে অামরা তাকে হাসপাতাল নিয়ে যাই। হাসপাতালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করলে বাড়ীতে নিয়ে অাসি।


এ বিষয়ে পেরিয়া ইউপি  সাবেক চেয়ারম্যান অাব্দুল হামিদ বলেন, অামি খবর পেয়ে সকালে গিয়ে লাশ দেখেছি অামার মনে হয় স্বাভাবিক মৃত্যু।
যৌতকের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যৌতুক সংক্রান্ত একটি শালিস করেছি ৬মাস পূর্বে। ওই বিষয়ে সমাধান করে অার কোনদিন যৌতুক চাইবেনা মর্মে সমাধান করে দিয়েছি।


এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে অামি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। প্রাথমিক ভাবে তার শরীরে কোন অাঘাতের চিহৃ পাওয়া যায়নি। তার বিছানা বেজা ছিলো। ময়না তদন্ত রিপোর্ট  হাতে পেলে মৃত্যুর কারন নিশ্চিত হওয়া যাবে।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

কুমিল্লা এর অন্যান্য খবরসমূহ
নাঙ্গলকোট এর অন্যান্য খবরসমূহ
লাকসাম এর অন্যান্য খবরসমূহ