আদালতে হাজির করা নিয়ে তামাশা বন্ধ করুন: মিজানুর - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

আদালতে হাজির করা নিয়ে তামাশা বন্ধ করুন: মিজানুর



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান বলেছেন, আটক ব্যক্তিদের আদালতে হাজির করা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে তামাশা করছে তা বন্ধ করার অনুরোধ জানিয়েছেন। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগ আয়োজিত এক সেমিনারে তিনি বলেন, ‘আপনারা যদি (আইনশৃঙ্খলা বাহিনী) কাউকে আটক করে থাকেন তাহলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সততার সংঙ্গে আদালতে হাজির করবেন।

 

দুই-তিন দিন আগে আটক রাখার পর ২৪ ঘণ্টার তারিখ দিয়ে আদালতে তুলে জনগণের সংঙ্গে তামাশা করবেন না।’ দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, ‘রাজনৈতিক সহিংসতা বন্ধে আমরা রাষ্ট্রকে যত ধরনের কঠোর হওয়া দরকার ততো কঠোর হতে বলেছি।

 

কিন্তু তাতে দেখেছি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দৌরাত্ম্য অপ্রত্যাশিতভাবে বেড়ে গেছে। এর ফলে এদের ওপর আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে। এ অবস্থা থেকে আমাদের পরিত্রাণ পেতে হবে, নইলে আরো ভয়াবহতা সৃষ্টি হবে। ‘রাজনীতিবিদরা শাস্তির ঊর্ধ্বে’ মন্তব্য করে করে মিজানুর বলেন, ‘রাজনীতি করলে শাস্তির ঊর্ধ্বে উঠে যায়। রাজনীতিবিদ হলে তাদের আটকাদেশ ৪০ দিন কেন ৮০ দিনেও থানায় পৌঁছবে না।’

 

নাটকে-সিনেমায় পুলিশের পোশাক পড়া যাবে না এমন সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করের তিনি। মিজানুর বলেন, ‘নাটক-সিনেমায় পুলিশের পোশাক পরে অভিনয় করা যাবে না এমন সিদ্ধান্ত মুক্তচিন্তার পথে একটি অন্তরায়। রাষ্ট্রের কতটা মাথা খারাপ হলে এমন উদ্ভট সিদ্ধান্ত নিতে পারে।’

 

 

এসময় তিনি বিরোধী জোট ও রাষ্ট্রকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘রাজনীতির নামে আপনাদের এসব সহিংসতা বন্ধ করতে হবে এবং রাষ্ট্রের কাছে অনুরোধ-রাষ্ট্র তুমি সংযত ও জনবান্ধব হও।’ সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মোখলেছুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ বিভাগের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ড. নুরুল ইসলাম, অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান এবং ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আলাউদ্দিন প্রমুখ।


এ সম্পর্কিত আরো খবর