এসরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে তুফান গতিতে দেশে নারী ও শিশু ধর্ষণ চলবে : মওদুদ - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

এসরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে তুফান গতিতে দেশে নারী ও শিশু ধর্ষণ চলবে : মওদুদ



অনলাইন ডেক্স, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

দেশের প্রতিটি ধর্ষণের ঘটনায় আওয়ামী পরিবার জড়িত। তারা যতদিন ক্ষমতায় থাকবে তুফান গতিতে ধর্ষণ চলবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সিনিয়র এই নেতা বলেন, দেশে বর্তমানে তুফান গতিতে নারী ও শিশু ধর্ষণ চলছে। শ্রমিকলীগ নেতা তুফান সরকার বর্তমান ক্ষমতাসীনদের সত্যিকারের প্রতিফলন ঘটিয়েছে। যতদিন এই আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকবে ততদিন এই তুফান চলতেই থাকবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরপেক্ষাতায় সহায়ক সরকার ও নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি)।

মওদুদ বলেন,‘কারও টু শব্দ করার সাহস নেই। পাঁচজনকে ক্রসফায়ার দিয়েছি, আরও ১৪ জনের লিস্ট করেছি’ ক্ষমতাসীন দলের সাভারের এক সাংসদের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, ‘এই ঘটনার পর সেই এলাকা ভয়ে-আতঙ্কে এখন খালি হয়ে গেছে। এই অবস্থার জন্য বর্তমান সরকারই সম্পূর্ণভাবে দায়ী।’

ষোড়শ সংশোধনীর রায়কে ঐতিহাসিক এবং কালজয়ী রায় দাবি করে প্রবীণ এই আইনজীবী বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর উপর সুপ্রীমকোর্টের রায়ের পর সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। এ ব্যাপারে সরকারি দল বিতর্ক সৃষ্টি করে এটাই প্রমাণ করেছে তারা বিচার বিভাগের স্বাধীনতা চায় না।’

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, ‘বিচার বিভাগের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য এটা একটি ঐতিহাসিক এবং কালজয়ী রায়। বিচার বিভাগকে স্বাধীন রাখার জন্য প্রধান বিচারপতির বক্তব্য সঠিক।’

তিনি বলেন, ‘আইনমন্ত্রী বলেছেন রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা সুপ্রীমকোর্ট নিয়ে নিতে চায়। অথচ কথাটা সত্য নয়। কারণ প্রধান বিচারপতি চান ১৯৭২ সালের মূল সংবিধানে অনুচ্ছেদ ১১৬-যা ছিল তা ফিরিয়ে দেয়ার জন্য।’

বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, ‘ষোড়শ সংশোধনীর এই রায়ে দেশের বর্তমান সংকটসমূহের উপর অনেক মূল্যবান মন্তব্য করা হয়েছে এবং দেশের সকল শ্রেণির মানুষের মনের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটেছে।’

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদের সভাপতিত্বে এসময় আরও বক্তব্য দেন বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার প্রমুখ।


এ সম্পর্কিত আরো খবর