৪১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করেনি - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

৪১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করেনি



৪১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করেনি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

এ বছরের উচ্চমাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার সকাল ১০টায় গণভবনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সব শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে ফলাফলের সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। এ সময় শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ফলাফলের সম্পৃক্ত কিছু তথ্য তুলে ধরেন।

এরপর দুপুর সাড়ে ১২ টায় বিস্তারিত ফল প্রকাশ করা হয়। এতে দেখা গেছে সারা দেশে ৪১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কোনো শিক্ষার্থী এবার পাস করতে পারেনি। আর শতভাগ পাশ করেছে ৯০৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে। এবার মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছিল ৮ হাজার ৯৮৫টি।

এবার ১০ শিক্ষা বোর্ডে পাসের গড় ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৪৭ হাজার ২৮৬ জন, যা মোট পরীক্ষার্থীর ৩ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

মোবাইলে যেভাবে মিলবে ফল

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকার ওয়েবসাইট www.dhakaeducationboard.gov.bd এ রেজাল্ট কর্নারে ক্লিক করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের EIIN এন্ট্রি করে প্রতিষ্ঠানভিত্তিক ফল ডাউনলোড করা যাবে।

(http://www. educationboard.gov.bd) থেকে ফল জানতে পারবেন। বরাবরের মতোই যেকোনো মোবাইল থেকে এসএমএস করে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানতে পারবেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

এছাড়া সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক বা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ই-মেইলে কেন্দ্র বা প্রতিষ্ঠানের রেজাল্ট শিট (সফট কপি) পাওয়া যাবে।

পরীক্ষার্থীদের তালিকা অনুযায়ী, এ বছর ৯ হাজার ৮১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৩ লাখ ৫১ হাজার ৫০৫ পরীক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। তাদের মধ্যে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৪৯৬ ছাত্র ও ৬ লাখ ৮৭ হাজার ৯ ছাত্রী।

এ বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয় গত ১ এপ্রিল। আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলিয়ে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৫১ হাজার ৩০৯ জন।

এর মধ্যে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের ১১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৫০ জন, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ৭৮ হাজার ৪৫১ এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে এক লাখ ২৪ হাজার ২৬৫ জন। মোট কেন্দ্র সংখ্যা দুই হাজার ৫৮০টি। পরীক্ষা শেষ হয় ১২ মে। আর ১২ থেকে ২১ মের মধ্যে হয় ব্যবহারিক পরীক্ষা।

সুত্র: যুগান্তর