পাঁচবিবিতে সবুজে সমারোহে ইঁদুরের হানা, দিশেহারা কৃষক - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

পাঁচবিবিতে সবুজে সমারোহে ইঁদুরের হানা, দিশেহারা কৃষক



মোঃ বাবুল হোসেন, পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে আমন ধান ক্ষেতে ইঁদুরের আক্রমণে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন কৃষকরা। সবুজ শ্যামল আমনের ধান গাছগুলোর গোড়া কেটে কুচি কুচি করে ফেলছে ইঁদুর। কোন ভাবেই দমন করতে পাচ্ছে না ইঁদুরের উপদ্র।


অনেক কৃষক স্থানীয় ভাবে তৈরি চোঙ্গা ফাঁদ ও কীটনাশক ব্যবহার করেও ইঁদুরের আক্রমন থেকে রক্ষা করতে পাচ্ছে আমন ক্ষেত। ফলে আমন ধানের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।


জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় প্রায় ২০ হাজার ১শ ৫০ হেক্টর জমিতে আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়।


উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বন্যার প্রভাব পড়লেও এ অঞ্চলে বন্যার তেমন কোন প্রভার না পরায় আমন ক্ষেতের মাঠ গুলো সবুজ শ্যামল বর্ণে ভরে উঠেছে। কিন্তুু এই সময়ে আমন ক্ষেতে দেখা দেয় ইঁদুরের আক্রমন। ধান ক্ষেত কেটে সাবাড় করে ফেলছে ইঁদুর। এলাকা ভেদে প্রায় ৬০-৭০ ভাগ আমন ক্ষেতে ইঁদুরের আক্রমণ দেখা দিয়েছে। স্থানীয় ভাবে তৈরি চোঙ্গা ফাঁদ ও কীটনাশক ব্যবহার করেও কাজ হচ্ছে না।


উপজেলার বাগজানা ইউনিয়নের পশ্চিম কুটুহারা গ্রামের কৃষক ফজলু ওরফে শুকটা জানান, তিনি এবার ৪বিঘা জমিতে আমন ধান লাগিয়েছেন। এর মধ্যে প্রায় ২বিঘা জমির আমন ধান ইঁদুরে কেটে সাবার করে ফেলেছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বাগজানা ইউনিয়ন পরিষদের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয়ে গেলে তাকে পাওয়া যায় না।
উপজেলার ধরঞ্জী গ্রামের কৃষক আব্দুল কাদের জানান, যে ভাবে ইঁদুর ধানের গোড়া কেটে ফেলছে, তাতে আমন ধান ঘরে তোলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি।


ধরঞ্জী ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জীবন কৃষ্ণ বলেন, আমরা সারাক্ষণ মাঠ পর্যায়ে কৃষদের পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। কৃষকদের অধিক সচেনতায় মাধ্যমেই ইঁদুরের আক্রমন থেকে আমন ক্ষেত রক্ষা করা একমাত্র উপায় বলে তিনি জানান।


এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ লুৎফর রহমান বলেন, ইঁদুর অত্যন্ত চালাক প্রাণী। ইঁদুর নিধনের জন্য কৃষকদের চতুরতার আশ্রয় নিতে হবে। পাশাপাশি সেম কাফ বা নালিরেট নামক কীটনাশক স্প্রে করেও ইঁদুর নিধন করা সম্ভব। ইঁদুর নিধনে কৃষকদের পরামর্শের জন্য মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা সার্বক্ষনিক কাজ করছেন।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

পূর্বের সংবাদ