রাজনীতির রাজপুত্র হান্নান শাহ্ ও কিছু কথা.... - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

রাজনীতির রাজপুত্র হান্নান শাহ্ ও কিছু কথা….



মতামত ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

বাংলাদেশের রাজনীতির ঘন কাটার কুয়াশার মতই কাউকে না জানিয়ে নিরবে চলে গেলেন না ফেরার দেশে রাজনীতি পরিবারের রাজপুত্র হান্নান শাহ।

দেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি’র সর্বচ্চো নীতি নির্ধারনী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির অন্যতম প্রভাবশালী সদস্য সাবেক মন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) আ.স.ম হান্নান শাহ মঙ্গলবার ভোরে সিঙ্গাপুরের র‌্যাফেলস হার্ট সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৭ সেপ্টেম্বর’১৬ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টা ৩৭ মিনিট শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ইন্নালিলাহি…….রাজিউন)। মৃত্যুকালে এ বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের বয়স হয়েছি ৭৫ বছর।

২০০৭ সালে সেনা সমর্থিত সরকারের আমলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও তৎকালীন সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব তারেক রহমান যখন অবৈধ ফখরুদ্দিন-মহিউদ্দিন গংদের জালে জেলখানায় বন্দি। তখন একমাত্র এ বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ আ.স.ম হান্নান শাহ বেগম জিয়া ও জনাব তারেক রহমানের মুক্তি দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করে। ওইদিন বিএনপির তৎকালীন মহাসচিব ইতিহাসের মহা মীর জাফর আব্দুল মান্নান ভুঁইয়া গংরা বিএনপি ভাঙ্গার বহু ষড়যন্ত্রে মেতে উঠে। কিন্তু দলের দুঃসময়ে রাজপথের অকুতভয় যোদ্ধা হিসাবে মিডিয়ায় বেশ আলোচিত হন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) আ.স.ম হান্নান শাহ।

তিনি সেনা সমর্থিত সরকারের আমলে বহু বার গ্রেফতার হন। যদিও হান্নান শাহর গ্রেফতার নিয়ে নাটকীয়তা নিয়ে দেশ জুড়ে বেশ আলোচিত ছিল। সেনা সমর্থিত সরকার হান্নান শাহকে বার বার গ্রেফতার করে এবং জেলখানা থেকে মুক্তিও পান। দলের দুঃসময়ে হান্নান শাহ’র ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়। এখানে শেষ নয় ২০০৮ সালে দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারা দেশে বিএনপির বিপর্যয় হয়।

তখন সরকার গঠন করে আওয়ামীলীগ। তখনকার সময় হান্নান শাহকে একাধিকবার রাজনৈতিক মিথ্যা মামলায়  সরকার দিনের পর দিন ঢাকা ও কাশিমপুর কারাগারে জেলখানায় বন্দি রাখে এবং হাইকোর্টের সর্বচ্চো রায়ে হান্নান শাহ মুক্তি লাভ করে।

২০১৪ সালে বিএনপি বিহীন সংসদ নির্বাচনের পর আবারও সরকার গঠন  করে আওয়ামীলীগ।

তখনকার সময় রাজনীতির রাজপুত্র হান্নান শাহকে আওয়ামীলীগ সরকার মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলখানায় বন্দি রাখে।

২০১৬  আগষ্ট মাসে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ আ.স.ম হান্নান শাহ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসা নেন। যদিও সেপ্টেম্বরের ২য় সপ্তাহে ডাক্তাররা প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন হান্নান শাহ সম্পূর্ন শংকা মুক্ত। বর্ষীয়ান এ রাজনীতিবিদ হান্নান শাহ’র মৃত্যুতে জাতি একজন সত্যিকার অর্থে রাজনীতির রাজপুত্রকে হারালো। বিশেষ করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি একজন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদকে হারালো। এ বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের শূন্যস্থান পূরন করার মত নয়।

মহান আল্লাহ আ.স.ম হান্নান শাহকে জান্নাতের মেহমান হিসাবে কবুল করুক আমীন।

লেখক : জিল্লুর রহমান ফারুক, সভাপতি – বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল, লাকসাম পৌরসভা।(কুমিল্লা)


এ সম্পর্কিত আরো খবর

মতামত এর অন্যান্য খবরসমূহ
রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ