মনোহরগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার খিলা ইউনিয়নের পশ্চিম বাতাবাড়িয়া গ্রামে মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মানের পরিবারের উপর বুধবার দিবাগত রাতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে একই গ্রামের মুহিবুর রহমান টিটু ও তার সহযোগীরা। হামলায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী, সন্তানসহ ৪ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন- মনোয়ারা বেগম (৫৫), খোরশেদ আলম (৩৪), জাহানারা আক্তার (৩২) ও সাথী আক্তার (২২)। আহতদের লাকসাম সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান বাদী হয়ে মনোহরগঞ্জ থানা একটি মামলা দায়ের করেন। টিটু ও তার ছেলে মোরশেদ আলম বাবনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে স্ত্রী, সন্তানসহ পরিবারের লোকজনকে গুরুতর আহত করে বসত ঘরে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর, ৮ ভরি স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান মালামাল ও নগদ ৫০ হাজার টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায় বলে দাবী করেন মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুল আজিজের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, হায়েনা ও সন্ত্রাসমুক্ত স্বাধীন বাংলার জন্য যারা জীবনের মায়া ছেড়ে যুদ্ধ করে বিজয় অর্জন করেছে, সেই বিজয়ের মাসে তাদের উপর হামলার ঘটনা সত্যি বেদনাদায়ক। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী জানাই। মনোহরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সামসুজ্জামান জানান এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।