মনোহরগঞ্জে নিখোঁজের ২৪ ঘন্টা পর বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে নিখোঁজের ২৪ ঘন্টা পর পুকুর থেকে মর্তুজা মিয়া (৭০) নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে মনোহরগঞ্জ উপজেলার কেয়ারী গ্রামের হাসনাবাদ বাজার সড়কের পাশে একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। মর্তুজা মিয়া ওই একই এলাকার বাসিন্দা। মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

 

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃদ্ধা মর্তুজা মিয়াকে শুক্রবার সকাল থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। আত্মীয় স্বজনের বাড়িসহ বহু স্থানে খোঁজ করা হয়। তার সন্ধানে এলাকায় মাইকিংও করা হয়েছে। শনিবার তার নিজ বাড়ির পুকুরের পানিতে মরদেহ ভেসে উঠে। তারা আরও জানান, বুদ্ধা মর্তুজার মিয়ার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তিনি আরেকটি বিবাহ করেন। দীর্ঘদিন থেকে তাদের বাড়িতে জায়গা জমি নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।

 

মর্তুজা মিয়ার পুত্রবধু পারভীন আক্তার জানান, শুক্রবার সকাল ১১টা থেকে তার শ্বশুরকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। সারাদিন আত্মীয় স্বজনের বাড়িসহ সবখানে খোজ করা হয়েছিল এবং এলাকায় মাইকিংও করা হয়েছে। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় শ্বশুরের সন্ধান চেয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

 

কুমিল্লা মনোহরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.আনোয়ার হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। প্রাথমিক ভাবে মরদেহের কোপালে হালকা আঘাতের চিহ্ন দেখতে পেয়েছি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেয়ে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে এবং পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।