হঠাৎ হল ছাড়ার নির্দেশে বিপাকে বাকৃবির শিক্ষার্থীরা - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

হঠাৎ হল ছাড়ার নির্দেশে বিপাকে বাকৃবির শিক্ষার্থীরা



মো: উবায়দুল হক, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

ময়মনসিংহ জেলা ও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের মধ্যে মঙ্গলবার রাতে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনার পর বুধবার সকাল ৮ টার মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে হল ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যায় কর্তৃপক্ষ।এত করে চরম বিপাকে পড়েন দূর-দূরান্তের শিক্ষার্থীরা।

 

এর আগে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে এক সপ্তাহ আগেই ঈদের ছুটি দিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) কর্তৃপক্ষ। গত ৬ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে ঈদের ছুটি। তারই ফলশ্রুতিতে হঠাৎ করেই মাঝ রাতে মাইকিং করে হল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

 

শিক্ষার্থীরা জানায়, হঠাৎ বাধ্যতামুলক হল ছাড়ার জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলেন না তারা। অনেককে বাস ও রেলের টিকেটের জন্য ময়মনসিংহ বাস স্টেশন ও রেলস্টেশনে প্রহর গুনতে দেখা যায়।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানা যায়, বাকৃবি ছাত্রলীগের সভাপতি মুর্শেদুজ্জামান খান বাবু ও জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয় ও আশেপাশের এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলছিল। পূর্ব এ বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর বাবু বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এক বন্ধুর বাসা থেকে ইফতার করে ফেরার পথে জসিম গ্রুপের নেতাকর্মীরা তাকে আটকে মারপিট করে। এসময় বাবুর মোটরসাইকেল ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে তারা।

 

পরবর্তীতে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি বাবু ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল গ্রুপের নেতাকর্মীরা একত্রিত হয়ে জসিম গ্রুপের নেতাকর্মীদের পাল্টা ধাওয়া করে। পরবর্তীতে দু’পক্ষের মধ্যে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেওয়াটখালি এলাকায় দু-গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয় ,এতে দু গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলি হয় এবং আহত হয় পাঁচজন। আহতদেরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

 

পরে রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি সামাল দিতে, প্রভোস্ট কাউন্সিলের মিটিং শেষে হল খালি করে দেয়ার সিন্ধান্ত নেয়া হয়।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

ময়মনসিংহ এর অন্যান্য খবরসমূহ