ইউপি সদস্যের কান্ড ! রামগঞ্জে বিদ্যুৎ সংযোগে অতিরিক্ত ফি না দেওয়ায় পেটানো হলো এক ভিক্ষুককে - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

ইউপি সদস্যের কান্ড ! রামগঞ্জে বিদ্যুৎ সংযোগে অতিরিক্ত ফি না দেওয়ায় পেটানো হলো এক ভিক্ষুককে



লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগে অতিরিক্ত ফি না পেয়ে এক পেশাদার ভিক্ষুক আনোয়ারা বেগমকে বেধর পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটনের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার শিবপুর এলাকার হরি বাড়িতে ওই ভিক্ষুককে নিমর্ম ভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্য্র এ ভর্তি করে। এ ব্যাপারে আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ করেন। এদিকে এ ঘটনায় স্থানীয় এলাকাবাসীসহ আহত আনোয়ারা বেগম ইউপি সদস্যের বিচার দাবী করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

 

পুলিশ জানান, অভিযোগের পর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে । সত্যতা পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
স্থানীয়রা জানান,সম্প্রতি ইছাপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড শিবপুর এলাকায় ইউপি সদস্য মোঃ লিটন বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নামে এলাকার অর্ধশতাধিক লোকের নিকট থেকে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে আদায় করেছেন।

 

শিবপুর এলাকার জাকির হোসেন,আকবর হোসেন, জসিম,আবু মিয়া,বাসু মিয়া, দুধ মিয়া, মাসুদ আলম, আনোয়ার হোসেন, নসু মিয়াসহ আরো অনেকেই জানান,স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন গত কয়েকদিন আগে ওই এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার কথা বলে ১২জনের কাছ থেকে প্রথম ধাপে পিলার জন্য ১ লক্ষ ৩০ হাজার এবং পরবর্তিতে মিটারের সংযোগের জন্য ৬ হাজার টাকা করে নিয়ে বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে বিদ্যুৎ সংযোগ পৌছায়। ওই সংযোগে আনোয়ারা বেগম অনেক কষ্টে ধার দেনা করে ৫ হাজার টাকা দিলেও ১ হাজার টাকা কম দেওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে রাখে ইউপি সদস্য লিটন। পরে বিষয়টি জানার জন্য আনোয়ারা বেগম তার বাসুরের পরামর্শে রামগঞ্জ বিদ্যু অফিসের ডিজিএম কাছে নালিশ করলে এতে ইউপি সদস্য লিটন ক্ষীপ্ত হয়ে আনোয়ারা বেগমের বসতঘরে ঢুকে এলোপাতাড়ি ভাবে কিল, ঘুষি ,লাথিসহ বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে অজ্ঞান করে চলে যায় লিটন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্য্র ভর্তি করে।

 

রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্য্র চিকিৎসাধিন আনোয়ারা বেগম জানান, ১০ বছর পূর্বে তার স্বামী মারা যায়। সংসারে তার ছেলে ও মেয়েসহ ৬টি সন্তান নিয়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভিক্ষা করে কষ্টে জীবন যাপন চলছে। কিছু দিন আগে শিবপুর এলাকার হরি বাড়ীতে (পিলার) বিদ্যুতের খুটিঁসহ বিদুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন ওই বাড়ির যৌথ পুকুর লিজ লাগিয়ে ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা নেয়। পরে মিটার বাবত দাবীকৃত আরো ৬ হাজার টাকা থাকলেও ৫ হাজার টাকা দিয়ে আর ১ হাজার টাকা দিতে পারবে না যানাতেই ইউপি সদন্য লিটন তাকে গালাগালি করে ঘরে প্রবেশ করে লাঠি দিয়ে বেদর মারধর করে পালিয়ে যায় লিটন।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন জানান,বিদ্যুৎ সংযোগের নামে তিনি কোন টাকা পয়সা উত্তোলন করে নাই। ভিক্ষুক আনোয়ারা এলাকাতে তাঁর বিরুদ্ধে নানা প্রকার কুৎসা রটাচ্ছে ,এ জন্য তিনি বিষয়টি তার ঘরে প্রবেশ করে জিঞ্চাসা করা হয়। এর চেয়ে বেশি আর কিছুই হয়নি , পিটানোর অভিযোগ সম্পূন মিথ্যা ও ভানোয়াট।

 

রামগঞ্জ থানা কর্মকর্তা ইনচার্জ মোঃ তোতা মিয়া জানান, ভিক্ষুককে পিটানোর ঘটনা মর্মান্তিক। এ ধরনের কাজ সহ্য করার না। তার পরও ভিক্ষুক আনোয়ার একটি অভিযোগ পেয়েছেন তিনি। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

রায়পুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
লক্ষীপুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
লক্ষ্মীপুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ