লাকসামে গ্রীস্মকালীন ফুটবল ফাইনালে নরপাটি স্কুল চ্যাম্পীয়ন

লাকসামে জাতীয় স্কুল-মাদ্রাসা ক্রিয়া সমিতির ৪৭তম গ্রীস্মকালীন ফুটবল প্রতিযোগীতার ফাইনাল খেলায় আল-আমিন ইন্সটিটিউট কে ৩-১ গোলে পরাজিত করে নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পীয়ন হয়েছে। লাকসাম শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলায় উপজেলা ক্রিয়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তাবারক উল্লাহ কায়েছের পরিচালনায় খেলার প্রথম আর্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকে নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়।দ্বিতীয় আর্ধের খেলায় আবারও পর পর ২টি গোল করে নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়।দ্বিতীয় আর্ধের শেষের দিকে আল-আমিন ইন্সটিটিউট ১টি গোল পরিশোধ করে।খেলার ফলাফলে নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ৩-১গোলে আল-আমিন ইন্সটিটিউট কে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌবর অর্জন করে।

খেলা শেষে বিজয়ী ও রানারআপ দলের হাতে পুরস্কার তুলেদেন লাকসাম উপজেলা র্নিবাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল হক,পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের,সহকারি কমিশনার(ভুমি) মোহাম্মদ ইসমাঈল হোসেন,মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার প্রভাত কুমার ভাউয়াল,নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান,আল-আমিন ইন্সটিটিউটের প্রধান শিক্ষক আবুল বাশার,নবাব ফয়েজুন্নেছা ও বদরুন্নেছা যুক্ত উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেন হেলাল,জালাল মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফখরুল ইসলাম সহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা,শিক্ষক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

খেলার শেষের দিকে আল-আমিন ইন্সটিটিউট ও নরপাটি বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলোয়াড়দের মাঝে একটি ধাক্কাধাক্কির ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাঠের বাহিরে উভয় দলে সর্মথকদের মাঝে উত্তেজনার দেখা দেয় এবং উভয় দলে সর্মথকরা হাতাহাতি তে জড়িয়ে পড়ে।

এ সময় উপজেলা প্রশাসন উভয় পক্ষ কে থামানোর চেষ্ঠা চালায়।উভয় দলের সর্মথকরা স্ট্রেডিয়াম ত্যাগ করে চলে যাওয়ার সময় তাদের ছোড়া পাথরের আঘাতে আল-আমিন ইন্সটিটিউটের ৫ম শ্রেনীর একজন ছাত্র মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হয়।আহত ওই ছাত্র কে প্রশাসনের পক্ষ থেকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।