লাকসামে নৌকার প্রার্থী হতে চান এডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঘোর কাটা মাত্রই ভোটারের দরজায় কড়া নাড়তে শুরু করেছে উপজেলা নির্বাচন। বিক্ষিপ্ত প্রচারণায় ব্যস্ত লাকসাম উপজেলার সম্ভাব্য প্রার্থীরা। থেমে নেই তাদের কর্মী-সমর্থকরাও। পছন্দের ব্যক্তিকে প্রার্থীরূপে দেখার প্রত্যাশামূলক পোস্টে ভরপুর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।

প্রথম বারের মত দলীয় প্রতীকের নির্বাচনে লাকসাম উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরাকে দলীয় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চান তার সমর্থকরা। সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে নির্বাচনে অংশ নেয়ার ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন খোদ তিনিও।
তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের একাধিক নেতার সাথে কথা বলে জানা যায়, এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা রাজনীতির মাঠে বহুবার প্রতিপক্ষের আঘাত সয়ে গেছেন, একাধিকবার মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন। বিএনপি-জামায়াতের ক্ষমতাকালীন সময় তাকে মাসের পর মাস ঘর-বাড়ি ছেড়ে থাকতে হয়েছিলো। তবুও তিনি আদর্শচ্যুত হননি। নেতাকর্মীদের মতে বহুমুখী প্রতিভাধর, উদারমনা রফিকুল ইসলাম হিরা উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে তিনি জনগণের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করবেন।

প্রতিবেদকের সাথে আলাপচারিতায় আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা বলেন, ‘জনপ্রতিনিধিত্ব হলো জনসেবার অন্যতম মাধ্যম। আমি শৈশব থেকেই জনসেবার স্বপ্ন বুকে লালন করে আসছি। আর এ স্বপ্ন পূরণের লক্ষেই এবার নৌকার প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, দলের জন্য আমার অতীতের ত্যাগ-তিতিক্ষা বিবেচনা করে মাননীয় এলজিআরডি মন্ত্রী প্রিয়নেতা মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি আমাকে আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী মনোনীত করবেন এবং লাকসামের ভোটাররা সদ্য অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মত আসন্ন উপজেলা নির্বাচনেও উন্নয়নের স্বার্থে দল-মত নির্বিশেষে নৌকার বিজয় নিশ্চিৎ করবে।’

উল্লেখ্য, এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা লাকসাম পৌর শহরের উত্তর লাকসাম এলাকার প্রয়াত সমাজসেবক আনু মিয়ার ছেলে। ৫ ভাই-বোনের সংসারে তিনি সবার বড়। সম্ভ্রান্ত পরিবারে বেড়ে ওঠা রফিকুল ইসলাম হিরা শৈশব থেকেই অত্যন্ত মেধাবী। নিজের মেধা ও মননশীলতার প্রতিফলন ঘটিয়েছেন জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে। লাকসাম নওয়াব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজে অধ্যয়নকালে ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমেই তার রাজনৈতিক জীবনের সূচনা। সুদক্ষতার সাথে নেতৃত্ব দিয়েছেন কলেজ ও উপজেলা ছাত্রলীগে। তিনি লাকসাম উপজেলা যুবলীগের সাবেক সফল সভাপতি। বর্তমানে নিষ্ঠার সাথে লাকসাম উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।
রাজনীতির পাশাপাশি সামাজিক কর্মকান্ডেও অগ্রণী ভূমিকা রেখে চলেছেন রফিকুল ইসলাম হিরা। অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে আইনি সহযোগিতা দিয়ে আসছেন।

গত বছরের পহেলা ফেব্রুয়ারি নিজ এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণের জন্য পৈত্রিক সম্পত্তির ১৮শতক জমি দান করে তিনি মহানুভবতার দৃষ্টান্ত রেখেছেন।

রফিকুল ইসলাম হিরা শুধু রাজনীতিক কিংবা সমাজসেবীই নন; লাকসামের সাংবাদিকদের একজন সফল সংগঠকও। তিনি লাকসাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এবং লাকসাম থেকে প্রকাশিত ‘সাপ্তাহিক সংবাদের কাগজ’ এর সম্পাদক ও প্রকাশক।