গুনতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর গৌরবময় ইতিহাস

১৯৩১ খ্রীঃ যাত্রা শুরু করে কুমিল্লার লাকসাম পৌর শহরে গুন্তি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। দাতা আনোয়ারা খাতুনের দানকৃত সম্পত্তি অনুমানিক ৩৩ শতাংশ জমির উপর গড়ে উঠে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।


১৯৮৬-৮৭ খ্রীঃ এর পনঃনির্মান (পাকা দালান ভবন) কাজ সম্পন্ন হয়। প্রায় ৮৯ বছরের ঐতিহ্যে লালিত এই প্রতিষ্ঠান থেকে বিগত বছরে হাজার হাজার শিক্ষার্থী শিক্ষার আলোয় আজ আলোকিত।


প্রতিষ্ঠাতা আনোয়ারা খাতুনের স্বামী সৈয়দ আবুল হাশেম প্রতিষ্ঠানের জন্ম লগ্ন থেকে অত্র বিদ্যালয়ে পাঠদান করেছিলেন। সৈয়দ আবুল হাসেম এর মৃত্যুর পর তাঁর সুযোগ্য পুত্র সৈয়দ আব্দুর রশীদ পাঠ দান কার্যক্রম অব্যাহত রাখেন। সৈয়দ আব্দুর রশীদ এর মৃত্যুর পর অত্র প্রতিষ্ঠানের উত্তরসূরিরা বিভিন্ন পেশায় কার্যরত থাকার কারণে সংশ্লিষ্টতা ধরে রাখতে পারেনি।



প্রতিবছর গুনতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রায় ৬০-৭০ জন শিক্ষার্থী প্রাথমিক সমাপনী কার্যক্রম শেষে মাধ্যমিকে ভর্তি হন। অনেকেই উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশে ও দশের সেবায় নিয়োজিত আছেন ।


অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আজ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে গোটা বিশ্বে। অনেকেই দেশের হয়ে কাজ করছেন সরকারী কিংবা বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে। তারা উক্ত প্রতিষ্ঠানের অহংকার।


বিগত বছরগুলোর ন্যায় -এই শ্যামল নিস্বর্গ আলোবাতাস বেষ্টিত পরিবেশে বেড়ে উঠছে শত শত শিশু। তারা আমাদের আগামীর ভবিষ্যৎ । অত্র বিদ্যালয়ের গর্ব।

অত্র বিদ্যালয়ের সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক বলে আগ্রহ প্রকাশ সৈয়দ আমেনা- রশিদ কল্যাণ সংস্থা ” (সার্কস) নামে সংগঠনটি।