নাঙ্গলকোটে শত বছরের বন্ধ করে দেয়া রাস্তা খুলে দিলেন ইউ এন ও

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের রায়কোট উত্তর ইউনিয়নের শরীফপুর গ্রামে শত বছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেন ওই গ্রামের মৃত জাফর আহম্মদের স্ত্রী ও সন্তানেরা।


গ্রামবাসীর অভিযোগের আলোকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার লামইয়া সাইফুল অভিযান পরিচালনা করে বৃহস্পতিবার রাস্তাটি খুলে দেন।

স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শরীফপুর গ্রামের মৃত জাফর আহম্মেদের স্ত্রী রওশনারা বেগম, মেয়ে তাছলিমা ও ছেলে রাসেদ জোরপূর্বক নিজেদের জমি দাবি করে শত বছরের একটি রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ায় ১০ পরিবার চরম দুর্বোগে পড়ে। কিছু দিন পূর্বে স্থানীয় আমেরিকাপ্রবাসী সোলাইমানের নাতি অসুস্থ হয়ে মারা গেলে রাস্তার কারণে ওই শিশুর লাশ দাফনে তাদেরকে অনেক সমস্যায় পড়তে হয়েছে।


ওই গ্রামটি কৃষিনির্ভর হওয়ায় গ্রামের মানুষ মাঠ থেকে ফসল আনার একমাত্র পথটি বন্ধ করে দেওয়ায় কৃষকদের পোহাতে হচ্ছে নিদারুণ কষ্ট। এ ছাড়া, রাস্তাটি বন্ধ করে বাড়ির সব ময়লা, আবর্জনা ওই স্থানটিতে ফেলার কারণে পার্শ্ববর্তী শফিকুর রহমান ও তার পরিবারসহ শতাধিক মানুষ মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ে। তাদের এ ব্যাপারে কেউ কোনো কথা বললে গ্রামবাসীকে মামলা, হামলার ভয় দেখিয়ে জিম্মি করে রেখেছে বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।


এ ব্যাপারে ওই গ্রামের শফিকুর রহমান ও গ্রামের প্রায় অর্ধশত লোকের স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দায়ের করা হয়। অভিযোগের আলোকে নির্বাহী অফিসার লামইয়া সাইফুল ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভ‚মি মিল্টন বিশ্বাস, উপজেলা সার্ভেয়ার ও রায়কোট ইউনিয়ন উপ সহকারী ভ‚মি কর্মকর্তা নিত্যানন্দ দাশ সহ বৃহস্পতিবার অভিযান পরিচালনা করে রাস্তাটি থেকে প্রতিবন্ধকতা সরিয়ে চলাচলের জন্য উম্মুক্ত করে দেন।


নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লামইয়া সাইফুল বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে রাস্তাটি খুলে দিয়েছি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দু’ পক্ষকে সার্ভেয়ার রেখে সীমানা নির্ধারণ করে আমাকে অবহিত করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।