ছাতকে অবৈধ টিলার মাঠিতে রাবার ড্যামও নদী ভরাটের সময় নিহত ১

ছাতকে টিলার মাঠি দিয়ে অবৈধভাবে খরস্রোতা নদী ভরাট ও নদীর উপর সরকারের কোটি কোটি টাকার নির্মিত রাবার ড্যাম প্রকল্প বন্ধের সময় সোমবার ২৬ফেব্রুয়ারি রাতে ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক ব্যক্তির মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে।

 

মঙ্গলবার ২৭ফেব্রুয়ারি পরে রহস্যজনক কারণে পোর্ট মর্ডেম ছাড়াই তার লাশ দাফন করা হয়েছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছাতকের ইসলামপুর ইউপির ছনবাড়ি-নোয়াকোট এলাকায় সোনাই নদীর উপর নির্মিত রাবার ড্যাম শারফিন টিলার অবৈধ মাঠি দিয়ে ভরাটের সময় ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে হেলপার মোহাম্মদ আলী (১৮) মারা যায়। সে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের আব্দুল হোসেনের পুত্র। এসময় বহুল আলোচিত শারফিন টিলার পাথর উত্তোলনের জন্যে গর্তের মাঠি সরিয়ে ট্রাক্টর দিয়ে অবৈধভাবে সোনাই নদী ওরাবার ড্যাম প্রকল্প ভরাট করা হচ্ছিল।

 

ঘাতক ট্রাক্টর মালিক হচ্ছেন, কোম্পানীগঞ্জের জালিয়ারপার-শারফিন টিলা গ্রামের শুকুর আলীর পুত্র মাসুক মিয়া ও ড্রাইভার ছিলেন, ছাতকের ইসলামপুর ইউপির বাহাদুরপুর গ্রামের এলাইছ মিয়ার পুত্র সুহেল মিয়া। এব্যাপারে ছাতক-ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হেকিম জানান, রাবার ড্যাম এলাকায় সোনাই নদী ভরাটের সময় মোহাম্মদ আলী নামের একশ্রমিকের মৃত্যুর খবর পেয়ে সেখানে গ্রাম পুলিশ পাঠান। কিন্তু কোম্পানীগঞ্জের-ইসলামপুর ইউয়িনের লোকজন তাকে তাড়িয়ে দেন। এব্যাপারে ছাতক থানার অফিসার্স ইনচার্জ আতিকুর রহমান জানান, মৃত্যুর খবর পেয়ে তিনি রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠান। কিন্তু পুলিশ সেখানে গিয়ে কোন লাশ পায়নি। তবে মৃত ব্যক্তির বাড়ি কোম্পানীগঞ্জ থাকায় তার পরিবারের লোকজন লাশ সরিয়ে নিতে পারে।