আগাম বন্যার আশংকা: করোনায় শ্রমিক সংকট ছাতকে সেচ্ছাশ্রমে কৃষকদের ধান কেটে দিলেন যুবকরা - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

আগাম বন্যার আশংকা: করোনায় শ্রমিক সংকট ছাতকে সেচ্ছাশ্রমে কৃষকদের ধান কেটে দিলেন যুবকরা



ছাতক প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

করোনাভাইরাস আতঙ্কে এবার সুনামগঞ্জে বাহির জেলা থেকে আসছেন না ধান কাটার শ্রমিক। সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখতে বাহির জেলা থেকে শ্রমিক না আনতে নির্দেশনাও দিয়েছে জেলা প্রশাসন। হাওরের বোরো ফসল তুলা নিয়ে সৃষ্ট শ্রমিক সংকটে দুঃচিন্তায় কৃষককুল।

ইতোমধ্যেই জেলার বিভিন্ন হাওরে ধানকাটা শুরু হয়েছে। আগাম বন্যা থেকে হাওরের ধানকে রক্ষা করতে এবং শ্রমিক সংকটে ধান কাটা নিয়ে বিপাকে রয়েছেন কৃষকরা। কৃষকদের এমন সংকটে এগিয়ে এসেছেন কিছু শিক্ষিত যুবক। লকডাউন অবস্থায় গ্রামে ফিরে গরীব কৃষকদের ধান কাটায় সহযোগিতায় করছেন তারা। শিক্ষিত ও সচেতন যুবকদের এমন মানবিক কাজকে স্বাগত জানিয়েছেন হাওর পাড়ের কৃষকসহ সচেতন মহল।

জেলার ছাতক উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউপির জল্লার হাওরে গণমাধ্যমককর্মী হাসান আহমদ ও শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল যুবক হাওরে সেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে ধান কাটা শুরু করেছে। আজ শুক্রবার সকাল থেকে বৃষ্টিতে বিজে ইউনিয়নের ভুইগাঁও গ্রামের কৃষক শাহজাহানের ৩কিয়ার জমির ধান কাটছেন যুবকরা। ধানকাটায় অংশ গ্রহন করেন, গ্রামের যুবক সইদুর রহমান, এবাদ উল্লাহ, ইউসুফ আলী, ফারুক আলী, ছবির আহমদ, শিহাব আহমদ, ফখর উদ্দীন, হুমায়ুন রসিদ, শাহজান মিয়াসহ প্রমুখ উপ উপস্থিত ছিলেন।

হাসান আহমেদ বলেন, করোনাভাইরাসের আতঙ্কে হাওরের বোরো ফসল কাটার চরম শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। কৃষকরা ধান কাটা নিয়ে বিপাকে আছেন। তুলনামুলক কৃষকদের ধান কেটে দিতে এলাকার কয়েকজন যুবক নিয়ে কাজ শুরু করেছি। কৃষকদের এমন সংকটে শিক্ষক ও সচেতন মহলসহ বিভিন্ন পেশার লোকদের এগিয়ে আশার আহবান জানিয়েছেন তিনি।


সিলেট এর অন্যান্য খবরসমূহ