অস্ত্রের বলে এ সরকার টিকে থাকতে চায়:ফারুক

রাশিয়ার সঙ্গে সরকারের অস্ত্রচুক্তির ব্যাপারে বিএনপির চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, “দেশের প্রতি, জনগণের প্রতি সরকারের আস্থা নেই। এ কারণে রাশিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কিনছে তারা। অস্ত্রের বলে এ সরকার টিকে থাকতে চায়।”শুক্রবার বেলা ১১টার পর রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসভবনে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।পুলিশের মারধরের ঘটনায় নিম্ন আদালতে ১০ কোটি টাকার মানহানি মামলা খারিজ হওয়া প্রসঙ্গে ফারুক বলেন, “সরকার সত্য মামলা খারিজ করে দিচ্ছে। এই মামলা সত্য কি না তা সাংবাদিকদের ছবি ও ভিডিও ফুটেজে রয়েছে।” বৃহস্পতিবার ফারুকের মামলাটি খারিজ হয়ে ‍যায়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন আশরাফ উদ্দিন মিজান, তিনি ফারুকের মানহানি মামলার বাদী। পরে ব্রিফিংয়ে এসে উপস্থিত হন মামলার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।

তিনি বলেন, “অসত্য মামলা আমলে নেওয়া হচ্ছে। খালেদা জিয়ার মামলা আমলে নিয়েছেন আদালত। অথচ মামলাটি অসত্য।”

বিচার বিভাগে সরকারের হস্তক্ষেপের সমালোচনা করে সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ বলেন, “দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে একের পর এক মামলা দিয়ে গ্রেফতার করছে সরকার। এটা স্বৈরতান্ত্রিক আচরণ। একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে এটা হতে পারে না।”

সম্প্রতি তিনদিনের সফরে অস্ত্র কেনা ও পারমাণবিক বিদ্যুৎকন্দ্র স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ১২ হাজার কোটি টাকা পেতে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তি করে বাংলাদেশ। এর মধ্যে প্রায় আট হাজার কোটি টাকার অস্ত্র কেনা হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।