নারায়ণগঞ্জে শিবির-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ১৫

নারায়ণগঞ্জে জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীদের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ১৫ সদস্য আহত হয়েছে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীদের লক্ষ্য করে পুলিশ ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। শনিবার সকালে শহরের চাষাড়া এলাকায় এই সংঘর্ষে আহত হাবিলদার এএসআই আবু জাফরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া আহত অন্য পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কনস্টেবল আবদুল আলিম, মামুন ও আমিনুলকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীর জানায়, সকালে জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীর চাষাড়া, বালুর মাঠ ও মিশনপাড়া এলাকায় জড়ো হয়ে মিছিল বের করে চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে আসে। এ সময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়।

এ সময় নেতা-কর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে এএসআই আবু জাফরকে বেধড়ক মারধর করে শহীদ মিনারের পেছনের গেটের দিকে বেইলী টাওয়ারের সামনে ফেলে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশের আরও কয়েকটি টিম ঘটনাস্থলে আসলে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।

এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীদের লক্ষ্য করে ২০ রাউন্ড টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। শিবির কর্মীরা চাষাঢ়া বিজয় স্তম্ভের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখলে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

এদিকে, শহরে ২নং রেলগেইট এলাকায় শিবিরের অপর একটি গ্রুপ মিছিল করার চেষ্টা করলে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।