টেকনাফে পুলিশ কর্তৃক চালক পেঠানোর ঘটনায় ৩ ঘন্টা সড়ক অবরোধ

টেকনাফে পুলিশের বেপরোয়া পিঠুনিতে মোঃ ফারক (২৫) নামে এক চালক গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনায় বিুব্ধ চালক ও শ্রমিকরা ৩ ঘন্টা টেকনাফ কক্সবাজার মহা সড়ক অবরোধ করেছে। আহত চালককে টেকনাফ স্বাস্থ্য কিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শ্রমিকরা প্রধান সড়কে ব্যারিকেড সৃষ্টি করেছে। জানা যায়, ১১ ফেব্র“য়ারী সোমবার বেলা ১১ টায় কক্সবাজার থেকে টেকনাফগামী একটি পিকআপ (চট্টমেট্টো ড-১৯৬৮) হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি পর্যন্ত পৌঁছলে কর্মরত হাইওয়ে পুলিশ ইনচার্জ এসআই জলুফিকার গাড়ী থামিয়ে চালককে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে উৎকোচ দাবী করে। এ সময় চালক ফারুক উৎকোচ দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা তাকে বেদড়ক মারধর করে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রাখে। স্থানীয় জনতা তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।
এদিকে হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশ ইনচার্জ এসআই জলুফিকার জানায়, সকালে পিকআপটি কক্সবাজার হয়ে টেকনাফ আসার পথে হোয়াইক্যংয়ে থামানো হয়। সেখানে গাড়ীর কাগজপত্র চেয়ে রোড পারমিট না থাকায় একটি মামলা দেয়া হয়। মামলা দেয়াতে চালক উত্তেজিত হয়ে অনাকাংখিত এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে।
এদিকে চালক ও শ্রমিকরা সকাল সাড়ে ১১ থেকে বিকাল সাড়ে ২ টা পর্যন্ত হোয়াইক্যং এলাকার প্রধান সড়কে ব্যারিকেড সৃষ্টি করে যান চলাচল বন্ধ রাখে। এসময় যাত্রীরা চরম দূর্ভোগ ও ভোগান্তিতে পড়ে। পরে খবর পেয়ে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি বখতিয়ার ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে সূষ্ট সমাধানের আশ্বাস দিলে বিুব্ধ শ্রমিকরা ব্যারিকেড তুলে নেয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।