চাচার হাতে ভাতিজা খুন

রাজশাহীর মোহনপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চাচার হাতে ভাতিজা হুমায়ন কবির (৩০) খুন হয়েছেন।  শনিবার বিকেলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হুমায়ন কবির মারা যান।  গত শুক্রবার বিকেলে মোহনপুরের জালালাবাদ গ্রামে ওই মারামারির ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মোহনপুর উপজেলার জাহানাবাদ মধ্য পাড়া গ্রামের বাসিন্দা হুমায়ন কবিরের সঙ্গে চাচা আসলাম শেখের ৭ শতক জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। দীর্ঘদিন ধরে ওই জমি হুমায়ন কবির ভোগ দখল করেছিলেন।

শুক্রবার বিকেলে হুমায়ন কবির জমি চাষ করতে গেলে আসলামের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে আসলাম হোসেন ও তার ছেলে সোহেন রানা মিলে হুমায়ন কবিরকে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর আহত করেন।

পরে স্থানীয়রা হুমায়ন কবিরকে উদ্ধার করে প্রথমে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার রাতে তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার বিকেলে হুমায়ন কবিরের মৃত্যু হয়। পরে শনিবার সন্ধ্যার আগে লাশ ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

রাজশাহীর মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকিরুল ইসলাম  বলেন, “সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। থানায় মামলা দায়ের করা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।