কুমিল্লায় অর্ধদিবস হরতালে জনজীবন ব্যাহত

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পুলিশের গুলিতে কর্মী নিহতের প্রতিবাদে কুমিল্লায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ডাকা অর্ধ-দিবস হরতাল চলছে ব্যাপক পিকেটিংয়ের মধ্যদিয়ে। মঙ্গলবার সকাল থেকে এখন পর্যন্ত নগরীর শাসনগাছা, চকবাজার ও টমছমব্রিজ বাসস্ট্যান্ড থেকে কোনো যানবাহন ছেড়ে যায়নি। অধিকাংশ দোকানাপাট ও প্রতিষ্ঠান বন্ধ। শহরে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা কার্যত অচল রয়েছে। তবে এর মধ্যেই এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  ভোর থেকেই হরতাল সমর্থক নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নিয়েছে। নগরীর জাঙ্গালিয়ায় ভোরে শিবিরকর্মীরা মিছিল করেছে।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে হরতাল চলাকালে পুলিশের গুলিতে শিবিরকর্মী ইব্রাহিম নিহত হলে এর প্রতিবাদে জামায়াত মঙ্গলবার কুমিল্লা জেলায় অর্ধ-দিবস হরতাল ডাকে।

মঙ্গলবার সকালে চৌদ্দগ্রামে পুলিশের সঙ্গে পিকেটারদের একাধিকবার ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উপজেলা সদরের মাদ্রাসা রোডের সামনে পুলিশ ৪ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। তবে এতে কেউ আহত হয়নি।

এছাড়া সাড়ে ৭টার দিকে গতরাতে মহাসড়কে আটকে থাকা প্রায় ১২টি গাড়ি ভাঙচুর করেছে পিকেটাররা। মহাসড়কের ঝাগুড়ঝুলিতে একটি ট্রাকে আগুন দেয় তারা।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জামায়াতের আমির মিজানুর রহমান জানান, ‘পুলিশ আমাদের কর্মীদের ওপর ৪ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুঁড়েছে। তবে কেউ আহত হয়নি।’

সকাল ৮টার দিকে মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানিগঞ্জে পিকেটাররা ইট-পাটকেল ছুঁড়ে রাস্তার পাশে থাকা ৬টি বাসের কাঁচ ভাঙচুর করেছে। এছাড়া, উপজেলার বিভিন্ন সড়কে জামায়াত-শিবির কর্মীরা মিছিল করেছে।

এদিকে, হরতাল প্রতিহতে নগরীতে আওয়ামী লীগ, এর অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরাও অবস্থান নিয়েছেন।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।