সব পত্রিকায় আগুন

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের মুক্তির মোড়ে এই ঘটনা ঘটে। আমার দেশ ও নয়া দিগন্ত পত্রিকা ছিনিয়ে নেওয়ায় নওগাঁয় সব পত্রিকায় আগুন দিয়ে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেছে স্থানীয় পত্রিকা বিক্রেতা ও এজেন্টরা।পত্রিকা বিক্রেতারা জানান, বেলা ১১টার দিকে ঢাকা থেকে নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড়ে পত্রিকার গাড়ি এলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা পত্রিকা এজেন্টদের কাছ থেকে আমার দেশ ও নয়া দিগন্তের সব কপি ছিনিয়ে নিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় পত্রিকা এজেন্ট ও বিক্রেতাদের সাথে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

তারা জানান, সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বেশ কয়েকজন পত্রিকা বিক্রেতাকে মারধর করে ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে পত্রিকা এজেন্ট ও বিক্রেতারা শহরের প্রধান সড়কের ওপর সকল পত্রিকায় আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় তারা প্রায় ১ ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।

পরে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি দল এসে আগুন নিভিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

দুপুর দেড়টার দিকে নওগাঁ পত্রিকা এজেন্ট সমিতির সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেন, নওগাঁ সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাভেদ জাহাঙ্গীর সোহেলের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের নেতারা ও পত্রিকা এজেন্টদের মধ্যে বৈঠক চলছে।

বৈঠকে সম্পূর্ণ ক্ষতিপূরণ ও পত্রিকা বিক্রেতাদের মারধরের দাবি জানায় পত্রিকা বিক্রেতা ও এজেন্টরা।

নওগাঁর পুলিশ সুপার (এসপি) কাইয়ুমুজ্জামান খান বলেন, সন্তোষজনক মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।