কুমিল্লার লাকসামে হরতালের সমর্থনে জামায়াত-শিবিরের বিক্ষোভ মিছিল

কুমিল্লার লাকসামে আগামীকাল  মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগে কারাবন্দি দলের নায়েবে আমীর মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ও আলেমদের গায়ে হাত তোলার প্রতিবাদে ও হরতালের সমর্থনে উপজেলা ও পৌরসভা জামায়াত-শিবিরের উদ্যোগে   বিক্ষোভ মিছিল  করা হয়।   শিবিরের কুমিল্লা জেলা দক্ষিণের সেক্রেটারী আব্দুর রব ফারুকীর নেতৃত্বে মিছিলটি লাকসামের গোলবাজার থেকে শুরু হয়ে শহর ও বাজারের গুরুত্বপূর্ন সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে একটি সংক্ষিপ্ত  সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।
মিছিলে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা দক্ষিণ শিবিরের স্কুল ও কলেজ শিক্ষা-কার্যক্রম সম্পাদক মাইন উদ্দীন, শিবিরের সাবেক দ: জেলা সাহিত্য সম্পাদক শহিদ উল্লাহ,লাকসাম শহর শিবির সভাপতি শাহাদাত হোসাইন, লাকসাম পূর্বের সভাপতি ফয়জুর রহমান,শিবির লাকসাম শহর শাখার সাবেক সভাপতি ফখরুল ইসলাম মাসুম, জামায়াত নেতা আব্দুল জলিল,আহসান উল্লাহ মিয়াজী,সাহাবুদ্দিন হায়দার, আবু বক্কর,ন ফ কলেজ শিবির সভাপতি আবু সাইদ প্রমূখ।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন শিবির জেলা দক্ষিণ সেক্রেটারী আব্দুর রব ফারুকি, বক্তব্য তিনি বলেন ” “সরকার ১৬ কোটি মানুষের প্রান, বিশ্ববরন্য মুফাস্সিরে কুরআন বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর সিনিয়র নায়েবে আমীর আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাইদীর মিথ্যা রায় দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে,বাংলার ১৬ কোটি মানুষ এই মিথ্যা রায় মানবেনা, তাই আমরা সরকারকে বলতে চাই অবিলম্ব মাওলানা সাইদীকে মুক্তি দিন। নচেৎ বাংলার মানুষ জীবন দিয়ে আল্লামা সাইদীকে মুক্ত করে আনবে ও এর মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটবে। পরে তিনি আগামীকাল  দেশবাসীকে কঠোর হরতাল পালন করার আহ্বান জানিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন।

উল্লেখ্য,বুধবার দুপুরে চেয়ারম্যান এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ বৃহস্পতিবার মাওলানা সাঈদীর মামলার রায় দেয়ার কথা ঘোষণা করেন।
এরপর দুপুরে এক জরুরি বৈঠকে বসেন জামায়াতে ইসলামীর নেতারা। বৈঠকে বৃহস্পতিবার হরতাল দেয়ার সিদ্ধান্ত অনুমোদিত হয়।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।