কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মন্দির পাহারায় শিবির

ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশে নেতা-কর্মীরা দেশের বিভিন্ন স্থানের ধর্মীয় উপাসানালয় পাহারা দিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় হিন্দুদের কেন্দ্রীয় মহাশশ্মান মন্দিরের সামনে বসে তা পাহারা দিতে দেখা গেছে শিবির নেতা-কর্মীদের। দেশব্যাপী জামায়াতে ইসলামী ৪৮ ঘণ্টার হরতালের দ্বিতীয় দিনে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। সংগঠনটির একটি অংশ মন্দিরের সামনে অবস্থান নেন। অন্যরা হরতাল পালন করছে। মন্দিরের সামনে উপস্থিত শিবিরের উপজেলা অফিস সম্পাদক জসিম উদ্দিন বলেন, শিবির কখনও হিন্দুদের মন্দিরে হামলা করেনি, করবেও না।

তিনি বলেন, ‘আমাদের আন্দোলন জালিম সরকারের বিরুদ্ধে। হিন্দুদের সঙ্গে আমাদের কোনো বিরোধ নেই। কিছু কিছু জায়গায় মন্দিরে হামলার ঘটনা শুনে, আমরা আমাদের এলাকার মন্দির পাহারায় নেমেছি।’

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন নোয়াখালীসহ বেশ কয়েকটি স্থানে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা এবং তাদের মন্দিরে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এটি জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীদের কাজ বলা হলেও দলটি তা অস্বীকার করে এ বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি করেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।