শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
শুক্রবার, অক্টোবর 22, 2021
spot_img
Homeজেলাটেকনাফ উপজেলা পরিষদের জমি দখল করে এবার পাকা ভবন নির্মাণ

টেকনাফ উপজেলা পরিষদের জমি দখল করে এবার পাকা ভবন নির্মাণ

টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সরকারী জমি জবর-দখল করে এবার এক মহিলা পাকা ভবন নির্মাণ করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জরুরী ভিত্তিতে দ্রুত প্রয়োজনীয় না নিলে অদূর ভবিষ্যতে জবর দখল মুক্ত করতে বড় ধরণের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সচেতন মহল। তাছাড়া উপজেলা পরিষদের আবাসিক এলাকায় ব্যাচলার কোয়ার্টার নামে পরিচিত ডরমেটরীর দক্ষিণ পার্শ্বে সরকারী জমি জবর দখল করে তৈরী করা একাধিক ঝুপড়ি ঘর এখনও উচ্ছেদ করা হয়নি। এভাবে প্রশাসনের নজরদারী ও প্রয়োজনীয় উদ্যোগের অভাবে সরকারী মূল্যবান জমি ক্রমে জবর-দখলকারীদের আয়ত্বে চলে যাচ্ছে। ২৮ এপ্রিল দুপুরে সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়, আনসার-ভিডিপি অফিসের দক্ষিনে উপজেলা পরিষদের জমি জবর দখল করে এক মহিলা পাকা ভবন তৈরী করছে। এ বিষয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ মোজাহিদ উদ্দিনের দৃষ্টি আর্কষণ করা হলে তিনি তাৎক্ষনিক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমিকে নির্দেশ দেন। স্থানীয় সচেতন মহল দাবী করেছেন- এখনই শুরুতে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা না নিলে পাকা ভবন বা দেয়াল তৈরী হয়ে গেলে উচ্ছেদ করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। পাশাপাশি সরকারী জমি বেহাত হয়ে যাবে। গত কয়েকদিন আগে উপজেলা পরিষদের সরকারী জমিতে স্থানীয় কিছু ব্যক্তি চলাচলের রাস্তা তৈরী করতে পাকা গাইড ওয়াল নির্মাণ করেছিল । উপজেলা প্রশাসন তা শুরুতেই অভিযান চালিয়ে উচ্ছেদ করে দিয়েছিল। কিন্তু এবার একজন মহিলা পাকা ভবন তৈরী করছে। এবার শুরুতেই এ পর্যন্ত রহস্যজনক কারণে বাধা দেওয়া হয়নি। বিগত ইউএনও’র বদলি এবং নবাগত ইউএনও’র যোগদানের সুযোগে দ্রুত গতিতে নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া আবাসিক এলাকায় ডরমেটরীর দক্ষিণ পার্শ্বে উপজেলা পরিষদের সরকারী জমি জবর-দখল করে তৈরী করা হয়েছে একাধিক ঝুপড়ি ঘর। জবর-দখলের শুরুতে প্রথমে ঝুপড়ি ঘর তৈরী করে পরে সুযোগ বুঝে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ চালিয়ে যায়। উল্লেখ্য, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সরকারী জমি জবর-দখল নিয়ে ইতিপূর্বে একাধিক বার লেখালেখি হয়েছিল। সর্বশেষ গত মার্চ মাসের মাসিক সভায় এপ্রিলের মধ্যেই উপজেলা পরিষদের সরকারী জমি পরিমাপ এবং চিহ্নিত করার সিধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এপ্রিল মাস শেষ হয়ে গেলেও এখনও গুরুত্বপূর্ন সরকারী স্বার্থে সরকারী সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন হয়নি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments