তারেক জিয়াকে দেশে ফিরিয়ে এনে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা’র দাবী:১৪দলের

বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিদেশে বসে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে অভিযোগ করে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে ক্ষমতাসীন ১৪ দল।
বৃহস্পতিবার বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক শেষে ১৪ দলের পক্ষে এ দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেন, আইনের চোখে সবাই সমান। সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ছেলে তারেক রহমান মুচলেখা দিয়ে চিকিৎসার নামে বিদেশে গেছেন। তিনি সেখানে বসে সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন। গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন।

তিনি ১৪ দলের পক্ষ থেকে তারেক জিয়াকে দেশে ফিরিয়ে এনে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে সরকারের কাছে দাবি জানান।

কর্নেল তাহের হত্যা মামলার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে সাবেক এ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত জীবিতদের খুঁজে আইনের আওতায় আনার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।
তিনি বলেন, কর্নেল তাহেরকে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে জিয়াউর রহমানের নির্দেশে হত্যা করা হয়েছিল। অথচ এই তাহেরই বন্দিদশা থেকে জিয়াউর রহমানকে মুক্ত করেছিল।

তিনি আরো বলেন, সংবিধান অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী হবেন অন্তর্বর্তী সরকারের প্রধান। তবে বিরোধী দল সংসদে এসে নিজেদের ফর্মুলা দিলে এ নিয়ে আলোচনা হতে পারে।

এর আগে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের সভাপতিত্বে ১৪ দলের শীর্ষ নেতারা বৈঠক করেন। বৈঠকে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নুহ-উল আলম লেলিন, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক নুরুর রহমান সেলিম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, আ ফম বাহাউদ্দিন নাছিম, কেন্দ্রীয় নেতা সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।