পরশুরামে ফায়ার সার্ভিস ষ্ট্রেশানটি ৬ বছরেও উদ্বোধন হয়নি

ফেনীর পরশুরাম উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ষ্ট্রেশানটি নির্মান কাজ শুরু হওয়ার ৬ বছর পরও উদ্বোধন করতে পারেনি। প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায় করে নির্মিত ফায়ার সার্ভিস ষ্ট্রেশান ভবন টি  অনেক আগেই নির্মান কাজ শেষ হলেও  বিদ্যুত সংযোগ না দেওয়ায় এখন পযন্ত উদ্বোধন  ও কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি। সর্বশেষ খবরে জানা গেছে চলতি সপ্তাহে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ কাজ শেষ হলে আগামী ১৫ জুন যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পরশুরাম ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশানটি উদ্বোধের সম্ভবনা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ফায়ার সার্ভিস ষ্ট্রেশান নির্মানের প্রকল্প পরিচালক  ও স্বরাষ্ট মন্ত্রনালয়ের যুগ্ন সচিব আতাউল হক পরশুরাম ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশান পরিদর্শন করে গেছেন এবং  আগামী ১৫ জুন পরশুরাম ফায়ার সার্ভিস উদ্বোধনের সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারন করে দিয়ে গেছেন। এই সময় প্রকল্প পরিচালক ফেনী পল্লী বিদ্যুত সমিতির জেনারেল ম্যানাজারকে দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য  বলে গেছেন। এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিপ আহমেদ খান, উপজেলা মুক্তিযোদ্বা কমান্ডার হুমায়ন শাহরিয়ার। পরশুরামের সলিয়ায় নব নির্মিত ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশানটি দীর্ঘদিন পরিত্যাক্ত থাকায় বিভিন্ন আসবাব পত্র ও দরজা জানালাও অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ভেঙ্গে ফেলেছে এবং চুরি করে নিযে গেছে।

গণপুর্ত অধিদপ্তরের তত্ববধানে নির্মিত ফায়ার সার্ভিস ষ্ট্রেশান নির্মান কাজ অনেক আগেই শেষ হয়েছে কিন্তু পল্লি বিদ্যুৎে এর কর্মকর্তাদের দায়িত্ব অবহেলার কারনে  বিদ্যুৎ সংযোগ না দেওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের উদ্বোধন ও কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি  বলে পকল্প পরিচালক আতাউল হক স্থানীয় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

গণপুর্ত বিভাগে কর্মকর্তারা জানান পল্লী বিদ্যুৎ এর নীতিমালা অনুযায়ী দুই দফায় নির্ধারিত ফি জমা দেওয়ার পরও গাফিলতি করে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়নি।
পরশুরামে ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশান না থাকায় গত এক মাসে প্রায় ১ টি শিক্ষা প্রতিষ্টান সহ ৭ টি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।