হ্নীলায় নিহত ছাত্রীর লাশ ১০দিন পর কবর থেকে উত্তোলণ

টেকনাফের হ্নীলায় দাফনের ১০ দিন পর ময়না তদন্তের জন্য অপহরণ-ধর্ষণ-নির্যাতনে নিহত স্থানীয় হ্নীলা হাই স্কুলের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী তসলিমা আক্তার নুনুর (১৩) লাশ পুলিশ কবর থেকে উত্তোলণ করেছে। সুরতহাল রিপোর্টের পর আলামত পরীক্ষার জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করে।
জানা যায়, ২৮ মে. সকাল সাড়ে ১০টায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সেলিনা কাজীর উপস্থিতিতে হ্নীলা দরগাহ গোরস্থান হতে মামলার আইও এসআই আনোয়ারুল হক আত্মীয়-স্বজনদের সহায়তায় তসলিমার লাশ উত্তোলণ করে মর্গে প্রেরণ করে। এসময় লাশ উত্তোলণের স্বাক্ষী হিসেবে নিহতের মামা বনি আমিন, প্রধান শিক্ষক মোক্তার আহমদ, সংবাদকর্মী হেলাল উদ্দিন, সাদ্দাম হোসাইন ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা মোঃ জাকারিয়াসহ বিপুল সংখ্যক এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত , ১৯ মে দাফনের দিনই টেকনাফ থানায় মা সুফিয়া খাতুন (৪৬) একটি অভিযোগ দায়ের করে। এরই প্রেক্ষিতে দাফনের ১০দিনের মাথায় উক্ত ছাত্রীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।