নৈরাজ্য-সহিংসতা না করার নিশ্চয়তা দিতে পারলে সভা-সমাবেশের অনুমতি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

“দেশে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর । সভা-সমাবেশের নামে নৈরাজ্য বন্ধের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। নৈরাজ্য-সহিংসতা না করার নিশ্চয়তা দিতে পারলে সভা-সমাবেশের অনুমতি মিলবে। সরকার কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সহ্য করবে না।

বুধবার জাতীয় সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৪৭তম বৈঠকে জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচিত এমপি মুজিবুল হক চুন্নু দেশে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করা সম্পর্কে জানতে চাইলে মন্ত্রী এ উত্তর দেন।  কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ ছায়েদুল হক বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

একই প্রশ্নের জবাবে বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সমাবেশের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে আগ্নিসংযোগ, ভাঙচুর, করাত দিয়ে গাছ কাটা, কোরআন শরিফ পোড়ানো হবে না- এমন নিশ্চয়তা দিলেই সমাবেশের অনুমতি দেয়া হবে।” র্যাবের বিভিন্ন অফিসের জন্য স্থায়ী অবকাঠামো নির্মাণ, প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য সাপোর্ট দিয়ে এ বাহিনীকে আরো আধুনিকীকরণ এবং র্যাবের ব্যাটালিয়ন ও সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

এছাড়া সাভারে রানা প্লাজা ধসের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি সফলভাবে মোকাবেলা করায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রশংসা করা হয়।

বৈঠকে র্যাব এর সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়।

বৈঠকে কমিটির সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর, হুইপ মির্জা আজম, মো. মুজিবুল হক, মো. নূরুল ইসলাম সুজন, সানজিদা খানম ও মো. সফিকুল ইসলাম অংশ নেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।