রায়পুরে সরকারি জমি লিজ নিয়ে বিক্রির পাঁয়তারা ইউপি সদস্য লাঞ্ছিত, দুই গ্রামে উত্তেজনা

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে নিজ ঠিকানা গোপন রেখে স্ত্রী-সন্তানের নামে সরকারি জমি লিজ নিয়ে তা ২২ লাখ টাকা বিক্রির পাঁয়তারার খবরে গ্রামবাসীর হাতে ইউপি সদস্য লাঞ্ছিত হয়েছেন। এ ঘটনায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
ঘটনাটি ঘটেছে- মঙ্গলবার (২৮ মে) রাতে সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া বাজার এলাকায়।

লাঞ্ছিত নুরুন নবী নামের ওই মেম্বার জেলার সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য।     বুধবার (২৯ মে) দুপুরে বাজার ব্যবসায়ীরা জানান, প্রায় ৫ বছর আগে দালাল বাজার ইউনিয়নের খন্দকারপুর গ্রামের ওই মেম্বার সোনাপুর ইউনিয়নের ৮নং বগা রাখালিয়া মৌজার ১নং তিয়ানে ১৪২২ দাগের ৫ শতাংশ জমি জেলা পরিষদ থেকে লীজ নেন। তিনি সরকারি বিধি লঙ্গন করে ওই জমিতে আধা-পাকা ভবন নির্মাণ করে ফেলে রাখেন।  এ জমিটি পেতে স্থানীয় ব্যবসায়ী নুর হোসেন ও ইসমাইল রায়পুর ইউএনওর মাধ্যমে দরখাস্ত করেছেন।

জমিটি যেন হাতছাড়া না হয় মেম্বার প্রভাবশালী কয়েকজনকে দিয়ে দরখাস্ত আহবানকারীদের নিয়ে কয়েকবার বৈঠকের মাধ্যমে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন। অবশেষে মঙ্গলবার রাতে ওই মেম্বার আবারো স্থানীয় ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠকে বসেন। মেম্বার বৈঠকে স্থানীয়দের অপমান করার চেষ্টা করলে তাকে লাঞ্ছিত করা হয়। নতুন করে ওই জমি নিয়ে দরখাস্ত পাওয়ায় ইউএনও তা ভূমি অফিসের কানুনগোর মাধ্যমে ইউনিয়ন ভূমি তহসিলদারকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

আবেদনকারী রাখালিয়া বাজারের ব্যবসায়ী ইসমাইল ও নুর হোসেন জানান, প্রভাবশালী ইউপি মেম্বার নুর নবী তার ঠিকানা (দালাল বাজার ইউনিয়নের খন্দকারপুর গ্রাম) গোপন রেখে রাখালিয়া বাজারের ৫ শতাংশ এ সরকারি জমিটি লীজ নিয়ে কয়েকদিন ধরে তা ২২ লাখ টাকায় বিক্রির পাঁয়তারা করছে। গত দুই মাস আগে এ তথ্য জানতে পেরে বিধি মোতাবেক ওই জমিটি পেতে স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে আমরা ইউএনওর কাছে আবেদন জানাই।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য (মেম্বার) নুর নবী বলেন, আমি এখন খুব ব্যস্ত আছি। সাংবাদিক-টাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য দিয়ে কোনো লাভ হবেনা। আমার ব্যবস্থা আমি নেব বলে মোবাইল ফোনের লাইনটি কেটে দেন।
সোনাপুর ইউনিয়নের তহসিলদার মনিরুল ইসলাম বলেন, ওই জমিটি পেতে নুর হোসেন ও ইসমাইল নামের ওই ব্যবসায়ী ইউএনওর কাছে আবেদন করেছে। তা তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার প্রস্ততি চলছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।