আদালতের রায় পেয়েও যোগ দিতে পারলেন না কুবি রেজিস্ট্রার!

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার পদে যোগদান করতে গিয়ে বুধবার ফিরে গেছেন বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) মো. মজিবুর রহমান মজুমদার। আইনি লড়াইয়ে জয়ী হয়ে স্বপদে যোগদান করতে গেলে উপাচার্যের দপ্তর থেকে তাঁকে এক সপ্তাহ পর যোগাযোগ করতে বলা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সুত্রে জানা যায়, প্রশাসনিক বিশৃঙ্খলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থিক ক্ষতির অভিযোগে ২০০৯ সালের ১২ অক্টোবর মজিবুর রহমানকে ওএসডি করা হয়। পরে কর্তৃপক্ষ ২০১১ সালে তাঁকে রেজিস্ট্রার পদ থেকে সরিয়ে পরিকল্পনা ও উন্নয়ন দপ্তরের উপপরিচালক পদে দায়িত্ব দেন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ২০১১ সালের ১২ মে মজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে ১৫ মে উচ্চ আদালত মজিবুর রহমানকে স্বপদে বহাল রাখার আদেশ দেন। এদিকে ২৩ মে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জরুরি সিন্ডিকেট সভা ডাকে। সভায় ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে মজিবুর রহমান মজুমদার খবর তরঙ্গ ডটকমকে বলেন, ‘আইনি লড়াই শেষে উচ্চ আদালতের মাধ্যমে ন্যায়বিচার পেয়েছি। বুধবার সকালে রায়ের কপি নিয়ে যোগদান করতে যাই। কিন্তু উপাচার্যের সাক্ষাৎ পেয়ে রেজিস্ট্রার দপ্তর ও উপাচার্যের ব্যক্তিগত কর্মকর্তার কাছে রায়ের কপি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র রেখে আসি। আমাকে এক সপ্তাহ পরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।’

এছাড়া উপাচার্য আমির হোসেন খান খবর তরঙ্গ ডটকমকে বলেন, ‘আমরা আদালতের কাগজ পাইনি। সিন্ডিকেটের মতামত অনুযায়ী আপিলের সিদ্ধাšত হয়। তাই মজিবুর রহমানকে যোগদান করতে দিইনি।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।