তারেক রহমানের বিরুদ্ধে আদালত যে নির্দেশনা দিয়েছেন, তা পালনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে আদালত যে নির্দেশনা দিয়েছেন, তা সংবিধান মেনে সরকারি কর্মকর্তাদের পালনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে  ।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের (আইডিইবি) কাউন্সিল হলে এক অনুষ্ঠান শেষে তিনি সাংবাদিকদের একথা বলেন। আইডিইবি’র ছাত্র সদস্য প্রতিনিধি সম্মেলন-২০১৩ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এতে সভাপতিত্ব করেন আইডিইবি’র সভাপতি একেএমএ হামিদ।

তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ইংরেজিতে আদালতের ইস্যু করা গ্রেফতারি পরোয়ানা গত ২৮ মে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। কয়েক দিন ধরে ইন্টারপোলের মাধ্যমে তারেকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে বলে ব্যাপক প্রচার চলে। তবে ইন্টারপোলের বিষয়টি আদালতের আদেশে নেই বলে জানা গেছে।

২০০৮ সালে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে গ্রেফতার হয়ে ‘চিকিৎসার জন্য’ জামিন পেয়ে লন্ডন যান তারেক রহমান। এরপর তিনি আর দেশে ফেরেননি। ওই জামিন বর্তমান সরকার বাতিল করে বলে কয়েকদিন আগে জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

গত ২০ মে লন্ডনে বিএনপি নেতাদের নিয়ে এক বৈঠকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগকে চাপ দিতে প্রবাসীদের সক্রিয় হওয়ার আহ্বান জানান বিএনপির সিনিয়র এই ভাইস চেয়ারম্যান।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “তারেক রহমান এক এগারোর তথাকথিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন। তিনি যাওয়ার সময় তিন বছর কোনো ধরনের সভা সভা সমাবেশ না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু গত কয়েকদিন আগে তিনি সে শর্ত ভঙ্গ করেছেন।”

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সভা সমাবেশ না করার শর্ত ভঙ্গ করার কারণে তার বিরুদ্ধে আদালত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিচ্ছে। এক্ষেত্রে আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।”

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে হবে। এ শিক্ষার মধ্যে সৃজনশীলতা আনতে হবে।”

তিনি বলেন, “বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে হলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের কোনো বিকল্প নেই।” ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, শিক্ষা সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শাহজাহান মিঞা, কেনিক আইডিইবি’র সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।