কুমিল্লায় রেল দুর্ঘটনার আশঙ্কা

কুমিল্লার শাসনগাছা থেকে কালিয়াজুরি মুড়াপাড়া চৌমুহনী প্রায় দুই থেকে আড়াই কিলেমিটার জুড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল লাইনের দুই পাশে রেল ক্লিপ খুলে নিচ্ছে মাদকসেবীরা। কোথাও কোথাও রয়েছে ভাঙ্গা। অনেক শূন্যতার মাঝে কোথাও কোথাও দেখা মিলে রেল ক্লিপ।
এলাকাবাসী জানান, এখানে মাদকসেবীরাই রেললাইন থেকে রেল ক্লিপ খুলে ভালো দামে বিক্রি করে। ফলে রেললাইনের ক্লিপ খুলে নেয়ায় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে এখানকার লোকজন আশংকা প্রকাশ করছেন।
সুত্র জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের কুমিল্লার শাসনগাছা থেকে কালিয়াজুড়ি পর্যšত রেললাইনের উপর নজর পড়েছে মাদকসেবীদের। আড়াই কিলোমিটার পথে রেললাইনের ছোট একটি ব্রিজ থাকলেও তাও ঝুঁকিপূর্ণ। যখন ট্রেন আসে তখন পথচারীরা লোহার একটি ব্রিজ দিয়ে বড় ড্রেনটি পাড় হয়। সেই ব্রিজটিও কিছু কিছু জায়গায় লোহা খুলে নিয়েছে মাদকসেবীরা।
এ প্রতিবেদক যখন ভাঙ্গাচুরার ছবি তুলছিলেন তখন এক মাদকসেবী বলে উঠেন, তুলে কোন লাভ নেই লাগালে আবার তুলে ফেলা হবে। কেউ আমাদের কিছু বলে না। আমরা অনেকদিন ধরে এখানে আছি। দুর্ঘটনা ঘটলে সরকার ঠিক করবে।
এদিকে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর কাউসারা বেগম সুমি খবর তরঙ্গ ডট কমকে জানান, এ রেললাইনের পাশে নেশাগ্র¯ত ছেলেদের আ¯তানা। নেশাগ্র¯ত ছেলেরা নেশা করে সেখানে বসে থাকে। রেললাইনের অনেক জায়গায় এঙ্গেল ক্লিপ তুলে বিক্রি করে নেশা করে। তিনি বলেন, মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে দু-একদিন পর পর অভিযান চালানো উচিত। অভিযান না চালালে নেশাগ্র¯তদের কবলে পড়ে রেল দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। আমি রেল কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করি।
এছাড়া রেলওয়ের উপ প্রকৌশলী হামিদুল হক খবর তরঙ্গ ডট কমকে বলেন, কিছু জায়গায় রেল ক্লিপ নেই। এ কারণে কোন দুর্ঘটনা ঘটতে পারে না।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।