রায়পুরে বিএনপির এক গ্রু“পের কার্যক্রমের বিরুদ্ধে অপর গ্রু“পের সশস্ত্র মহড়া

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সোমবার (৩ জুন) বিকেল ৪টায় বিএনপি নেতা  জহিরুল আলম বাচ্চু গ্র“পের সকল কার্যক্রমের বিরুদ্ধে আরেক বিএনপি নেতা নজরুল সরকার গ্র“পের নেতা কর্মীরা সশস্ত্র মহড়া দিয়েছে। তারা বাচ্চু গ্র“পের সকল কার্যক্রম কেরোয়া ইউনিয়নে বন্ধ এবং প্রতিহতের ঘোষনা দিয়েছেন।
কেরোয়ি ইউনিয়নের জোরপোল এলাকায় এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির একাংশ নেতাদের ঘোষিত কেরোয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম সরকার, ছাত্র দলের আহবায়ক মোঃ শাহআলম, যুবদলের সদস্য সচীব মোঃ স্বপন মৃধ্যা, ছাত্রদল নেতা আরিফ হোসেন ও পারভেজ পাটওয়ারী প্রমূখ ।
নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ইউনিয়ন বিএনপির এক নেতা বলেন, গত সপ্তাহে লক্ষীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক সংসদ সদস্য আবুল খায়ের ভূইয়ার রায়পুরস্থ ব্সভবনে উপজেলা বিএনপি নেতারা ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়াম্যান মোজাম্মেল হোসেনকে সভাপতি ও জহিরুল আলম বাচ্চুকে সাধারণ সম্পাদক করে ৬নং চরপাতা ইউনিয়ন কমিটি ঘোষনা করে। এর প্রতিবাদে একই দিন দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা বিএনপির আরেক অংশের কয়েক নেতা মোজাম্মেল হককে সভাপতি ও ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম সরকারকে সাধারণ সম্পাদক করে পাল্টা কমিটি ঘোষনা করেন। এর দুদিনের মাথায় বাচ্চু গ্র“পের লোকজন সরকার গ্র“পের তিন নেতাকে কুপিয়ে জখম করেন। একারনে আবুল খায়ের ভূইয়া দুদিন আগে ওই ইউনিয়নের  বিএনপিসহ সহযোগি সংগঠনগুলোর সকল কার্যক্রম স্থগিত ঘোষনা করেন।
নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, সংসদ সদস্য আবুল খায়ের ভুইয়া আমার কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন। কিন্তু উপজেলা বিএনপির কয়েক নেতা অযোগ্য ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোকদের দিয়ে কমিটি গঠনের চেস্টা করেছিলেন। কিন্তু ইউনিয়নের নেতা কর্মরিা এর প্রতিবাদ করেছে। আগামীতে বাচ্চু গ্র“পের লোকদের সকল কার্যক্রম স্থগিত ও প্রতিহতের ঘোষনা দিয়েছে নেতাকর্মীরা।
জহিরুল আলম বাচ্চু বলেন, আবুল খায়ের ভূইয়ার নির্দেশে উপজেলা বিএনপির নেতারা আমার কমিটি অনুমোদন করেছেন। কিন্তু সরকার গ্র“পের লোকজন তা সহ্য করতে না পেরে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছেন।
লক্ষীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক সংসদ সদস্য আবুল খায়ের ভূইয়া মোবাইল ফোনে জানান, উপজেলা ও পৌর বিএনপি নেতাদের ওই ইউনিয়ন কমিটি করে দেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা ব্যর্থ হয়েছে। তাই বিষয়টি মিমাংসা না হওয়া পর্যন্ত বিএনপিসহ সকল সংগঠনের কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।