চকরিয়া বিএমচরে সশস্ত্র মহড়ায় খতিয়ানভুক্ত জায়গা জবর দখলের অভিযোগ

চকরিয়া বিএমচরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তাঁর লোকজন কর্তৃক অস্ত্রের মহড়া দিয়ে ব্যক্তি মালিকানাধীন খতিয়ানভুক্ত জায়গা জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। এসময় দখলকারীদের পক্ষ থেকে অন্তত ১০/১২রাউন্ড গুলীবর্ষণ করা হয় বলে দাবি আবুল হোসেন গংয়ের। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের খনজনিয়াঘোনা এলাকায় দুস্কৃতিকারীরা এহেন সশস্ত্র মহড়া দেয়ার ঘটনা ঘটায়। উপজেলার পূর্ব বড়বেভওলা ঈদমনির মৃত আবদুল জলিলের পুত্র জায়গার মালিক চাষি আবুল হোসেন জানান, ৬জুন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আমার মালিকানাধীন বিএমচর ইউনিয়নের খনজনিয়াঘোনায় খতিয়ানভুক্ত ৩.২০শতক বি.এস খতিয়ান নং-৭, বিএস দাগ নং- ৩৭২২, ৩৭১৫ ও ৩৬২৪ জমিতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বদিউল আলমের নেতৃত্বে তাঁর ২০/৩০জনের সংঘবদ্ধ সশস্ত্র লোকজন নিয়ে উঠে পড়ে। তাৎক্ষণিক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকায় প্রাণে বাঁচতে আবুল হোসেনগং জমি ছেড়ে অন্যত্র চলে গেলেও আধিপত্য বজায় রাখে ইউপি চেয়ারম্যান। তিনি আরো জানান, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান অস্ত্রবাজ হওয়ায় দিন-দুপুরে অতর্কিতভাবে পূর্বের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে কয়েক দফা ১০/১২রাউন্ডের মতো ফাঁকা গুলী ছোড়ে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে। এতে শংকাগ্রস্ত হয়ে জমির মালিকগং দিকবিদিক পালিয়ে কোন রকম প্রাণে রক্ষা পায়। এখনও দুস্কৃতিকারীরা ওই জমিতে সশস্ত্র মহড়া দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবুল হোসেনগং। এব্যাপারে ভুক্তভোগি আবুল হোসেন বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা যায়। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জবর দখলকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মাঝে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। আশংকা রয়েছে যে কোন মূহুর্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের। অন্যদিকে ইউপি চেয়ারম্যান বদিউল আলমের কাছে জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সংযোগ পাওয়া যায়নি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।