তদন্তে সন্তোষজনক রিপোর্ট পাওয়া গেলে বন্ধ দুই চ্যানেলের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত: তথ্যমন্ত্রী

“সুনির্দিষ্ট কারণ ও গ্রাউন্ডে দিগন্ত ও ইসলামিক টিলিভিশন চ্যানেল দুটি বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। চ্যানেল দুটির কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে শো’কজের জবাব দিয়েছে। এ জবাব ও চ্যানেল দুটির ভূমিকা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্তে সন্তোষজনক রিপোর্ট  পাওয়া গেলে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।”

শনিবার সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট”শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি আরো বলেন, “সরকার  ভিন্নমত দমন কিংবা সরকারের সমালোচনা করার জন্য এ দুটি টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করা হয়নি।”
বিশেষ পরিস্থিতিতে দাঙ্গা সৃষ্টি করা এবং হানাহানিতে উস্কানি দেয়ার অভিযোগে এই দুটি টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে  উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী জানান, এটি সাময়িক ব্যবস্থা।
শেখ রাসেল মেমোরিয়াল সমাজ কল্যাণ সংস্থা এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে। এতে দফতরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, জাসদের কার্যকরি সভাপতি মাঈনুদ্দিন খান বাদল এমপি ও আয়োজক সংগঠনের মহাসচিব সৈয়দা রাজিয়া মোস্তফা বক্তব্য দেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বর্তমান সরকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে। এ কারণে আমরা গণমাধ্যমের পূর্ণ স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছি।”
তিনি বলেন, “গণমাধ্যম রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ। এ স্তম্ভকে একটি মহল হলুদ সাংবাদিকতার মধ্য দিয়ে ধ্বংস করতে চায়, তাই এ হলুদ সাংবাদিকতাকে নিষ্ক্রিয় করতে সবার সম্মিলিত ভূমকিা রাখা প্রয়োজন বলে মনে করি।”

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।