রায় আসছে জামায়াত নেতার সংসদ সদস্য পদ থাকবে না: কামরুল

আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম জানিয়েছেন আদালত অবমাননার দায়ে দণ্ডিত জামায়াতের সংসদ সদস্য এ এইচ এম হামিদুর রহমান আযাদের সংসদ সদস্য পদ থাকবে না । তবে এই জামায়াত নেতা আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন বলে জানান তিনি। রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে হরতালবিরোধী অবস্থানকালে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ কথা বলেন আইন প্রতিমন্ত্রী।
কামরুল বলেন, আদালত অবমাননার দায়ে জামায়াতের তিন নেতার শাস্তি হয়েছে। আর তাই আজকের এই হরতাল আদালতের বিরুদ্ধে হরতাল। এরকম আদালতের বিরুদ্ধে হরতাল দেবার সংস্কৃতি চালু হয়ে গেলে আগামীতে যারা ক্ষমতায় আসবে তারাও বিপাকে পড়বেন।

হরতাল দিয়ে আদালতের দণ্ডাদেশ মওকুফ করা যায় না মন্তব্য করে তিনি বলেন, তারা হরতাল না দিয়ে আপিল করতে পারতো। আপিলের মাধ্যম্যেই তারা দণ্ড মওকুফ করতে পারত।

এ সময় আইন প্রতিমন্ত্রী বলেন, জামায়াতের তিন দণ্ডপ্রাপ্ত নেতা যদি আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে আদালতে উপস্থিত হতেন, তাহলে হয়তো বা এই রায় আসতো না।

হামিদুর রহমান আযাদ আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন- আইন প্রতিমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের বিরোধিতা করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও বনমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, দণ্ডদেশ প্রাপ্ত সংসদ সদস্য আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না।

জামায়াতের আজকের হরতাল আদালতের বিরুদ্ধে দাবি করে তিনি বলেন, এটা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় অন্তরায় সৃষ্টি করবে।

জামায়াত যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে হরতাল ও নৈরাজ্য করছে দাবি করে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আরও কয়েক যুদ্ধাপরাধীর বিচার সমপন্ন হয়ে যাবে বলে জানান হাছান মাহমুদ।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, রাজনীতিতে বিএনপি ও জামায়াতের অবস্থা এতটাই নাজুক হয়ে গেছে যে তাদের অবস্থা মুসলিম লীগের মতো হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এনামুল হক শামীম, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ আজিজ, সহ-সভাপতি মুকুল চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।