স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ: পুলিশের এসআই ২ দিনের রিমান্ডে

ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম (৪০) কে দুই দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। রোববার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ-১ আমলি আদালতের বিচারক মো. শফিকুল ইসলাম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত শুক্রবার তাকে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছিল। রোববার এসআই জাহিদের রিমান্ড শুনানি হয়। কোর্ট ইন্সপেক্টর কুদ্দুসুর রহমান সিকদার জানান, বিকেলে মুন্সীগঞ্জ-১ আমলি আদালতের বিচারক মো. শফিকুল ইসলাম ২২ ধারায় ধর্ষিতার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

সিরাজদিখান থানা সূত্রে জানা যায়, এসআই জাহিদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলাটি রোববার জেলা ডিবিতে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হয়। এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে ডিবির এসআই মো. মাসুদকে।

এদিকে, শনিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডা. এহসানুল করিম ধর্ষিতার মেডিকেল পরীক্ষা করেন।

একই দিন বেলা ১১টার দিকে সিরাজদিখান থানার অভিযুক্ত দারোগার ফাঁসির দাবিতে রাজদিয়া অভয় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সিরাজদিখান থানা ঘেরাও করেন। এ সময় তারা এসআই জাহিদুল ইসলামের ফাঁসির দাবি জানিয়ে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাসারের মাধ্যমে জেলা পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমানের বরাবরে স্মারকলিপি দেন।

উল্লেখ্য, সিরাজদিখান থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম থানা সংলগ্ন রশুনিয়া এলাকায় একটি চারতলা ভবনের তৃতীয় তলার ফ্লাটে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন। গত ৮ জুন ভবনের মালিক স্ত্রীসহ ঢাকায় গেলে বাড়িতে থাকা তার মেয়েকে ওই দারোগা ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ রয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।