রায়পুরে ব্রীজ ভেঙ্গে ৭ দিন ধরে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার হায়দরগঞ্জ-খাসেরহাট-হাইমচর সড়কে ২৭ বছরের পুরোনো ব্রীজটি ভেঙ্গে ৭ দিন ধরে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এতে করে ওই অঞ্চলের ২০ হাজার শিক্ষার্থী-এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীরা দুর্ভোগে রয়েছেন।
বুধবার (১৯ জুন) রায়পুরের বিশিষ্ট আলেম মাও. তাহের জাবেরী ও কৌশিক আহাম্মদ সোহেল জানান, চট্টগ্রাম আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আনোয়ার হোসাইন তাহেরি জাবেরি আল মাদানী নামের সড়কের ডাকাতিয়া নদীর ওপর নির্মিত সরু করা এ ব্রীজটি ১৯৮৬ সালের ডিসেম্বরে ২৭ লাখ টাকা ব্যায়ে নির্মাণ করা হয়। গত বুধবার (১৯ জুন) ৭ দিন আগে দু’পাশের রেলিং বিহীন ও মাঝখানে গর্ত হওয়ায় সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।
মঙ্গলবার রাতে জয়নাল নামের এক বৃদ্ধ পথচারী ব্রীজের গর্তে পড়ে মারাত্মক জখম হন। বুধবার সকালে সানজিদা ও ফাহমিদা নামের দুই স্কুল ছাত্রী ব্রীজ থেকে নদীতে পড়ে মারাত্মক আহত হন। প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন এবং প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী এ সড়কের ব্রীজটির ওপর দিয়ে চলাচল করছে।
যোগাযোগ করা হলে উত্তর চরআবাবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদ উল্যা বিএসসি বলেন, এ বেহাল সড়কটি এবং ব্রীজটি নির্মাণের জন্য একাধিকবার এমপি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিকট আবেদন জানানো হয়েছে। ৭ দিন ধরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ভাঙ্গা এ ব্রীজটি একবারও কেউ দেখতে আসেনি।
উপজেলা প্রকৌশলী আক্তার হোসেন চৌধুরী বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ এলাকাবাসী ব্রীজটি সম্পর্কে অবহিত করেছেন। বরাদ্দ না থাকায় আপাতত কিছুই করা সম্ভব নয় বলে জানান।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।