রায়পুরে সরকারি সড়ক দখল করে জামায়াত নেতার মার্কেট নির্মাণ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার হায়দরগঞ্জ বাজারের বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন সরকারি সড়ক দখলে নিয়ে মার্কেট নির্মাণ করে তা ভাড়া দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে ইব্রাহিম বয়াতি নামের এক জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে।
এ ঘটনায় বাধা দেয়ায় সম্প্রতি ওই জামায়াত নেতা আদালতে ইউএনও ও তহসিলদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।
বুধবার (১৯ জুন) দুপুরে সরেজমিনে হায়দরগঞ্জ বাজারে গেলে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, প্রভাবশালী ওই জামায়াত নেতা কয়েক আ.লীগ নেতার সাথে যোগসাজসে মার্কেট নির্মাণ করে আমির হোসেন, সোহাগ ষ্টোর, মোল্লা ষ্টোর, মৃত্যঞ্জয় মজুমদারসহ ৫ ব্যক্তির কাছে ২ লাখ টাকা করে জামানত নিয়ে বছরে ১২ হাজার টাকা করে চুক্তিতে ভাড়া দিয়েছেন।
জিজ্ঞাসার এক পর্যায়ে দোকানদার আমির হোসেন বলেন, এ মার্কেটের মালিক ইব্রাহিম বয়াতী তাদের কাছ থেকে ২ লাখ টাকা নিয়ে বছরে ১২ হাজার টাকা করে দেওয়ার চুক্তিতে ভাড়ায় দিয়েছেন। অন্যকথা বলতে পারবোনা।
এ ব্যাপারে উত্তর চরআবাবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদ উল্যা বিএসসি বলেন, স্থানীয় কয়েক প্রভাবশালীর সাথে আঁতাত করে জামায়াত নেতা ইব্রাহিম বয়াতী সরকারি এ সম্পদ দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করেছেন। জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তহসিলদারকে বিষয়টি অবহিত করলেও তারা ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।
যোগাযোগ করা হলে প্রভাবশালী জামায়াত নেতা ইব্রাহিম বয়াতী বলেন, হায়দরগঞ্জ তাহেরিয়া ফাজিল মাদ্রাসা সড়কে প্রায় তিন বছর আগে খরিদ করা রেকর্ডীয় দেড় শতাংশ জমি স্থানীয় ফারুক আহাম্মদ পাটওয়ারীর কাছ থেকে ক্রয় করি। প্রায় দুই মাস আগে এখানে মার্কেট করে স্থানীয় ৫ জনের কাছে বছরে ১২ হাজার টাকা করে দোকান ভাড়া দিয়েছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় তহসিলদার বেআইনীভাবে আমাকে নোটিশ প্রদান করে হয়রানি করায় তাদের বিরুদ্ধে আমি কয়েকদিন আগে লক্ষ্মীপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছি। যা এখনো চলছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দুলাল চন্দ্র সূত্রধর বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান ও তহসিলদারের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে জমির সকল কাগজপত্র দেখাতে বলে ইব্রাহিম বয়াতীকে নোটিশ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু সে আমাদের কথা শুনেননি। এ ঘটনায় উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।