সীতাকুণ্ডে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা: প্রতিবাদে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

বুধবার গভীর রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কাজী মহিউদ্দিন সোহেল নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।হত্যাকাণ্ডের পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। নিহত মহিউদ্দিন সোহেল (৪০) সীতাকুণ্ড পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। তিনি বিগত পৌরসভা নির্বাচনে কমিশনার প্রার্থী হয়ে পরাজিত হন। তিনি পৌরসভার দক্ষিণ মহাদেবপুর এলাকার ভূঁইয়া পাড়ার মৃত রহুল আমিনের ছেলে।

হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মীরা সীতাকুণ্ড সদরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করেছে। দলীয় কোন্দল এবং পৌরসভা নির্বাচনের প্রার্থিতা নিয়ে এই হত্যাকান্ড ঘটছে বলে ধারণা করছেন স্বজনরা।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতারের খবর পাওয়া যায়নি। সীতাকুণ্ড থানার ওসি সামিউল আলম নতুন বার্তাকে জানান, সীতাকুণ্ড সদরস্থ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে গভীর রাতে উপজেলার হাসপাতাল এলাকার বাড়িতে যাবার পথে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত একটি ফিলিং স্টেশনের কাছে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পর তার অবস্থা দেখে ডাক্তাররা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। চমেক হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে হত্যার প্রতিবাদে সকাল ১০টার দিকে ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মীরা সীতাকুণ্ড উপজেলা সদরে ব্যারিকেড় দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে।

নিহত সোহেলেরর ভাগিনা জিকু সামি জানান, কী কারণে তাকে মেরেছে তা এখনো কেউ বলতে পারছে না। তবে ধারণা করছি, পৌরসভার নির্বাচনসংক্রান্ত ব্যাপারে প্রতিপক্ষরা হত্যা করতে পারে।

স্থানীয় একাধিক সুত্র জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে যুবলীগ নেতা দিদারুল আলম অ্যাপোলো গ্রুপের কিলার জকু মহিউদ্দিন সোহেলকে তার গ্রীন সিটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে ফোন করে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর হাসান গোমস্থা কবরস্থান এলাকায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। লাশ বাড়ির কাছে ফেলে রাখে।

সীতাকু্ণ্ড উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুজিবুল হক খন্দকার নতুন বার্তাকে বলেন, “ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত তা আমরা শনাক্ত করতে পারছি না। আমরা চাই, তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুজেঁ বের করে শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।”


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।