ওবামা বিশ্বাসঘাতক

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা কে উইকিলিকস্ এর প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ ‘ইতিহাসের সবচেয়ে স্বচ্ছ শাসন ব্যবস্থা’র প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা না রাখায় আমেরিকার  বিশ্বাসঘাতক হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। ভারতের বহুল প্রচলিত সংবাদ মাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়া মঙ্গলবার প্রকাশিত এক খবরে এ তথ্য জানায়। অ্যাসাঞ্জ বলেন, “এডওয়ার্ড স্নোডেন অষ্টম ব্যক্তি যিনি গোয়েন্দাদের অধীনে কাজ করার জন্য ওবামার প্রশাসনের শাস্তি পাচ্ছেন।”

উইকিলিকস্ এর প্রতিষ্ঠাতা মার্কিন প্রশাসনের দ্বিমুখী নীতি প্রসঙ্গে বলেন, “মার্কিন সরকার আমাদের সবার বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি করছে। অন্যদিকে এডওয়ার্ড স্নোডেনের বিরুদ্ধে গুপ্তচর বৃত্তির দায় এনে আমাদের হেনেস্তা করাতে চাইছে।”

তিনি বলেন, “সরকারের নানা অপকর্মের গোপনীয়তা রক্ষা করা হয় খুব কঠোরভাবে। কিন্তু মানবতার পক্ষে যত গোপনীয়তা দরকার সেসব নির্মূল করা হয়েছে।”

ওবামার কঠোর সমালোচনা করে অ্যাসাঞ্জ বলেন, “কিছুদিন ধরে ‘বিশ্বাসঘাতক’ শব্দটা চারপাশে ঘুরছে। কে বিশ্বাসঘাতক এখানে? কে এই প্রজন্মকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল পরিবর্তনের? শুধু প্রতিশ্রুতির ভাঙার জন্যই কি এই অন্ধকারময় খেলা? কে মার্কিন সংবিধান রক্ষার শপথ নিয়েছে?”

তিনি প্রশ্ন রাখেন, “কে গোপন আইনের বিচার, জুরি, ঘাতকতার শক্তির বিরুদ্ধে বিচারের দাবি করবে? পুরো পৃথিবী ব্যাপি এই মানবতার শক্তির চর্চা করবে? আমাদের খুব সর্তকভাবে চিন্তা করতে হবে কাকে বিশ্বাসঘাতক বলব।”

তিনি গুপ্তচরবৃত্তি ও গোয়েন্দা তৎপরতা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, “গোপন আইন উন্মুক্ত করুন। বিনা বিচারে অনির্দিষ্ট সময়ব্যাপি আটকে রাখা থেকে বিরত থাকুন। বিভিন্ন দেশে তরুণ আমেরিকান সৈন্য হিসেবে পাঠানো থেকে বিরত থাকুন। আক্রমণ এবং হত্যা করা বন্ধ করুন। এই নিকৃষ্ট পেশা বন্ধ করুন। গোয়েন্দা তৎপরতার গোপন যুদ্ধ থেকে বিরত থাকুন।”

তিনি স্নোডেনকে আশ্রয় দেবার জন্য বিশ্বের দেশগুলোকে আহ্বান জানিয়ে অ্যাসাঞ্জ বলেন, “এডওয়ার্ড স্নোডেনের অধিকারের জন্য যে দেশই এগিয়ে আসবে তাকেই ভয় দেখানো হতে পারে। কিন্তু এই কৌশল কাজ করবে না।”

সংস্লিষ্ট সবাইকে আগ বাড়িয়ে পদক্ষেপ নেয়ার এবং স্নোডেনের পাশে থাকার অনুরোধ করেন তিনি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।