কুমিল্লার দাউদকান্দিতে ভুল সিজারে প্রসূতী মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ

দাউদকান্দি উপজেলার পৌর সদরের সেবা হাসপাতালের খন্ডকালিন চিবিৎসক ও গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাঃ শারমিন সুলতানার চিকিৎসাধীন গর্ভবতী রাবেয়া বেগমকে ভুল সিজারের ফলে মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে পৌর সদরের সেবা হাসপাতালে। হাসপাতালে সামনে রোগীর স্বজনরা উত্তেজিত হয়ে বিশৃংঙ্খার সৃষ্টি করলে থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রে আনে। মৃত রোগীকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে নিহতের স্বজনরা জানান। পুলিশ ও রোগীর স্বজনরা জানান, বুধবার বিকেলে দাউদকান্দি উপজেলার মাইজপাড়া দিঘীরপাড় গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী রাবেয়া বেগমের প্রসব ব্যাথা দেখা দিলে তাকে সেবা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ শারমিন সুলতানা রোগীকে সিজারের অপেরাশেনের মাধ্যমে বাচ্চা ডেলিভারীর উপদেশ দেন। রোগীর অভিভাবকদের অনুমতি নিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক গর্ভবতী রাবেয়া বেগমকে অপারেশনের মাধ্যমে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তান প্রসব করেন। রোগীর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ দেখা দিলে রোগীর অবস্থা অবনতি ঘটে। তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে ঢাকা প্রেরণের নির্দেশ দেন। রোগীর অবস্থা আশংকাজনক দেখা দিলে রাতেই রাবেয়াকে দ্রুত ঢাকায় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্য চিকিৎসক কয়েক ঘন্টা অগেই রাবেয়ার মৃত্যু হয়েছে।

এব্যাপারে রোগীর স্বামী রবিউল ইসলামের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ শারমিন সুলতানার ভুল চিকিৎসায় তার স্ত্রী মৃত্যু হয়েছে। তিনি ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পর ওই ডাক্তাররা বলেন ভুল চিকিৎসায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে কয়েক ঘন্টা আগেই রোগী মারা গেছে। সেবা হাসপাতালের খন্ডকালিন চিবিৎসক ও গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাঃ শারমিন সুলতানার মোবাইল কথা বলার চেষ্টা করলে তার ফোন বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। হাসপাতালের পরিচালক দাউদকান্দি পৌর কাউন্সিলর আহম্মদ উল্লাহ জানান, হাপাতালে একজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে । রোগীটি কি কারণে মৃত্যু হয়েছে তবে তিনি ঢাকায় থাকায় বলতে পারছেন না।

দউিদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত মোঃ নাছির উদ্দিন মৃধা জানান, থানার নিকটেই সেবা হাসপাতালেই  চিৎকারের শব্দ শুনে উপ-পরিদর্শক সাজেদুলকে নিয়ে ঘটনারস্থলে যাই। রাবেয়া বেগম নামে এক রোগী ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে। আবার হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ বলেছে রোগীর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হচ্ছে তাকে উন্নত চিকিৎসায় ঢাকায় প্রেরণ করা হচ্চে। ঢাকায় একটি হাসপাতালে নেওয়ার পর রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এব্যাপারে এখনও কোন অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।