গ্রামীণ ব্যাংকে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করবেন না: সরকারকে ফখরুল

গ্রামীণ ব্যাংকে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ না করতে আহ্বান জানিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, “গ্রামীণ ব্যাংকের ৮৪ লাখ নারী গ্রাহকের পাশে বিএনপি থাকবে এবং আগামী দিনে বিএনপি ক্ষমতায় এলে এ প্রতিষ্ঠানটিকে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে দেয়া হবে।” বৃহস্পতিবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। এর আগে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ইউনূস সেন্টারে নোবেল বিজয়ী ড. মোহাম্মদ ইউনূসের সঙ্গে বৈঠক করেন মির্জা ফখরুল।

ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, “বর্তমান সরকার শুরু থেকেই ড. মো. ইউনূস এবং গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতি খড়গহস্ত হয়েছে। সরকার ড. ইউনূসকে বিভিন্ন সময়ে হেয় প্রতিপন্ন করেছে, তার সঙ্গে দুর্বব্যবহার করেছে এবং নানাভাবে হয়রানি করেছে। কিন্তু তার মতো একজন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন প্রজ্ঞাবান মানুষকে কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশের অনেক উপকারে আসবে।”

এ সময় পদ্মা সেতুর টেন্ডারে আহ্বান নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, “নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর টেন্ডার ‘পাগলের প্রলাপ’ ছাড়া আর কিছুই না। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন ছাড়া এ সেতু করা সম্ভব না।”

সরকারের একগুয়েমির কারণে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু থেকে সরে গেছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।

ড. ইউনূসের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, “এটা ছিল সৌজন্য সাক্ষাৎ। নোবেল জয়ের আগ থেকেই তিনি আমার প্রিয় ব্যক্তিত্ব। তাছাড়া তিনি অর্থনীতির শিক্ষক ছিলেন আর আমিও অর্থনীতির ছাত্র। তিনি নোবেল পুরস্কার পাওয়ার পর তার প্রতি আমার শ্রদ্ধা আরো বেড়ে গেছে। সবশেষ যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক পদক ‘কংগ্রেসনাল গ্লোড মেডেল’ পাওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানানোর জন্য গিয়েছিলাম।”
বৈঠকে কোনো রাজনৈতিক বিষয়ে আলোচনা হয়নি জানিয়ে ফখরুল বলেন, “আমরা তার সঙ্গে রাজনৈতিক বিষয়ে আলোচনা সমুচিত মনে করি না। কারণ তিনি রাজনীতি করেন না। তবে বৈঠকে গ্রামীণ ব্যাংকের বর্তমান অবস্থা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।”
গ্রামীণ ব্যাংক তদন্ত কমিশনের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “এ কমিশন বলছে গ্রামীণ ব্যাংককে ১৯ টুকরা করবে। এটা আসলে  প্রতিষ্ঠানটিকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র ।”
‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার ও পদ্মা সেতু নিয়ে সরকার একগুয়েমি করছে’ এমন মন্তব্য করে চার সিটি নির্বাচনের ফলাফলের পর সরকারকে বাস্তবতার দিকে ফিরে আসার আহ্বান জানান ফখরুল।
এ সময় তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু উপস্থিত ছিলেন।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।