অভিনেত্রী মিতা নূরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

অভিনেত্রী মিতা নূরের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার ভোরে রাজধানীর গুলশানের বাসার ড্রয়িংরুম থেকে তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার ভোরে মিতা নূরের মৃতদেহ ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেয় তার স্বামী ও ছেলেরা। খবর পেয়ে সোমবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে তারা গুলশান অ্যাভিনিউয়ের ৪ নম্বর রোডে মিতা নূরের বাসায় যান। সেখানে ড্রইং রুমে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে এই অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ পাওয়া যায়। এ সময় তার গলায় ওড়না প্যাঁচানো ছিল বলে জানান ওসি।

তিনি জানান, ইতিমধ্যেই সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আলামত সংগ্রহ শুরু করেছে। মিতা নূরের বাবা জানান, এর আগেও দু’বার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল তার মেয়ে। তিনি আরো জানান, তার মেয়ে মিতাকে তার স্বামী মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। তবে গণমাধ্যমের সামনে আসেননি মিতা নূরের স্বামী।

এটি আত্মহত্যা কিনা ময়নাতদন্ত শেষেই তা নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
উল্লেখ্য, ১৯৮৯ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনের সাপ্তাহিক নাটক ‘সাগর সেঁচা সাধ’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে মিতা নূরের অভিষেক হয়। ১৯৯২ সালে আফজাল হোসেনের নির্দেশনায় অলিম্পিক ব্যাটারির বিজ্ঞাপনে মডেল হয়ে ব্যাপক পরিচিত পান। এরপর তাকে নিয়মিত বিভিন্ন নাটকে দেখা যেতে থাকে। টিভি নাটকে অভিনয় ও মডেলিংয়ের পথ ধরে ২০১১ সালে নাট্য নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন মিতা নূর। ওই বছর ‘চৌঙ্গালি’ নামের একটি খণ্ড নাটক নির্মাণ করেন তিনি।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।