বিক্ষোভ মিছিল,ককটেল বিস্ফোরণ,গাড়ি ভাংচুর ও ধরপাকড়ের মধ্য দিয়ে শিবিরের হরতাল চলছে

বিক্ষোভ মিছিল, ককটেল বিস্ফোরণ, গাড়ি ভাংচুর ও ধরপাকড়ের মধ্য দিয়ে ছাত্রশিবিরের দেশব্যাপী হরতাল চলছে। নিখোঁজ নেতাদের সন্ধান ও তাদের আদালতে হাজির এবং কেন্দ্রীয় সভাপতিসহ জাতীয় নেতাদের মুক্তির দাবিতে বুধবার দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকে ছাত্রশিবির। রাজধানীর উত্তরবাড্ডার শাহজাদপুরে হরতালের সকালে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ইসলামী ছাত্রশিবির। এ সময় ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এছাড়াও রামপুরা ও বনশ্রীতে মিছিল বের করে শিবির। সেখানে পুলিশ মিছিলে বাঁধা দিলে পুলিশের সঙ্গে শিবিরকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ছাত্রশিবিরের ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখার সভাপতি রাশেদুল হাসান রানার নেতৃত্বে বের হওয়া ওই মিছিল থেকে দুই জন শিবিরকর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এদিকে, কুমিল্লার শাকতলা-নয়াগাঁও এলাকায় শিবিরের মিছিল পুলিশ বাঁধা দিতে গেলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে শিবিরকর্মীরা। সেখানে পুলিশের দুটি গাড়ীতে অগ্নিসংযোগ করে ভাংচুর চালায় তারা। এ সময় ২জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

চট্টগ্রামের জেলরোডে মিছিল বের করে ছাত্রশিবির। এছাড়াও নগরীর ষোলশহর ও বায়েজিদসহ বেশকিছু এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম নগরীতে যানবাহনে ভাংচুর চালায় শিবিরকর্মীরা।

ফেনীতে শিবিরের মিছিল বের করে রাস্তায় পেট্রোল ঢেলে সড়ক অবরোধ করা হয়। এ সময় বিক্ষুব্ধ শিবিরকর্মীরা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে।

ব্রাক্ষণবাড়ীয়ার কাউতলীতে শিবিরের মিছিল থেকে এক শিবিরকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

চাঁদপুরের শাহরাস্তি ও দোয়াভাঙ্গায় শিবিরের বিক্ষোভ মিছিল। সেখানে দুটি গাড়িতে ভাংচুর চালানো হয়।

রাজশাহী ও দিনাজপুরে ছাত্রশিবিরের বিক্ষোভ মিছিল, গাড়ি ভাংচুর।

এছাড়াও সিরাজগঞ্জের নলকায় প্রায় ২০টি যানবাহন ভাংচুর করেছে শিবিরকর্মীরা। সেখান থেকে তিন জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তারা গাড়িভাংচুরে জড়িত কনিা তা নিশ্চিত নয়।

গাইবান্ধায় পলাশবাড়ীতে মাঠেরহাটে শিবিরের বিক্ষোভ। বাসসহ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে শিবিরকর্মীরা।

তবে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন ও কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের উপনির্বাচনী এলাকা হরতালের আওতামুক্ত রয়েছে।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ছাত্রশিবিরের সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল জব্বার এ হরতাল ঘোষণা করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নিখোঁজ শিবির নেতা আজিজুর রহমান, তাজাম্মুল আলী, আব্দুস সালাম, রাজশাহী মহানগরীর অফিস সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম মাসুম, ইবি শিবির নেতা ওয়ালী উল্লাহ ও আল মুকাদ্দাস, ঢাকা মহানগরীর উত্তর শিবির নেতা নুরুল আমিন ও ঢাকা মহানগরী পশ্চিম শাখার নেতা হাফেজ মো.জাকির হোসেনের সন্ধান ও তাদের আদালতে হাজির এবং কেন্দ্রীয় সভপতিসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে এ  হরতালের ডাক দেয়া হয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।