জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকারের ভূমিকা কী হবে তা জিসিসি নির্বাচন দেখেই বুঝা যাচ্ছে:মওদুদ

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকারের ভূমিকা কী হবে তা গাজীপুর সিটি করপোরেশন (জিসিসি) নির্বাচন দেখেই বুঝা যাচ্ছে  বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ । এ সময় তিনি হঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনে কোনো ধরনের কারচুপির চেষ্টা হলে সেখান থেকেই সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি আয়োজিত ‘বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ও দেশপ্রেমিক জাতীয়তাবাদীর শক্তির করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মওদুদ এসব কথা বলেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সরকারি দলের ৮০ শতাংশ প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে যারা বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের দায়িত্ব পালন করেছেন।

বিএনপির প্রার্থীর এমএ মান্নানের চরিত্র হরণ করতে সরকার নানামুখি ষড়যন্ত্র করছে অভিযোগ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, চার সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হেরে এখন জয়ের জন্য তারা বেপরোয়া হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, এ সরকারের অধীনে সুষ্ঠ-নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে পারে এমনটি এখন আর কউ বিশ্বাস করে না। প্রিজাইডিং অফিসারের স্বাক্ষর ছাড়া নির্বাচনী ফল ঘোষণা করা হয় না। সুতরাং গাজীপুর সিটিতে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার সঙ্গত কোনো কারণ নাই।

‘গাজীপুর সিটি নির্বাচনে সরকারের নানামুখি ষড়যন্ত্রের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে বার বার অবহিত করার পরও কমিশন এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। কারণ, নির্বাচন কমিশন বর্তমান সরকারের হাতের পুতুল তাদের নিজস্ব কোনো ক্ষমতা নাই’ বলেন মওদুদ।

ন্যাশনাল পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান শেখ শওকত হোসেন নিলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, জাগপা মহাসচিব নুরুদ্দিন বাবু, মুসলীম লীগ মহাসচিব আতিকুল ইসলাম, ডেমোক্রেটিক পার্টির মহাসচিব সাইফুদ্দিন মনি প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।